Thursday, February 29, 2024
বাড়িজাতীয়মহারাষ্ট্রের মুখ‌্যমন্ত্রী ও দুই উপমুখ‌্যমন্ত্রীর বাড়িতে খাবার ও পানীয় সরবরাহে রাজ‌্য সরকারের...

মহারাষ্ট্রের মুখ‌্যমন্ত্রী ও দুই উপমুখ‌্যমন্ত্রীর বাড়িতে খাবার ও পানীয় সরবরাহে রাজ‌্য সরকারের কোষাগার থেকে বছরে ৬.৫ কোটি টাকা খরচ হবে

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,‌ ৬ জানুয়ারি: মহারাষ্ট্র সরকার মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিণ্ডের সরকারি বাসভবন ‘বর্ষা’ এবং উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশের ‘সাগর’-এ খাদ‌্য ও পানীয় সরবরাহের জন‌্য বার্ষিক পাঁচ কোটি টাকার চুক্তিতে দু’টি সংস্থাকে বরাত দেওয়ার দশমাস পর এবার আরেক উপমুখ‌্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ারের বাড়ির জন‌্য ১.৫ কোটি টাকার চুক্তিতে আরও একটি সংস্থাকে নিয়োগ করল।

এই নিয়ে মুখ‌্যমন্ত্রী ও দুই উপমুখ‌্যমন্ত্রীর বাড়িতে খাবার ও পানীয় সরবরাহে রাজ‌্য সরকারের কোষাগার থেকে বছরে ৬.৫ কোটি টাকা খরচ হবে। উল্লেখ‌্য, শিণ্ডের বাড়ির জন‌্য ৩.৫ কোটি টাকা এবং ফড়নবিশের বাড়ির জন‌্য ১.৫ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। রাজ্য সরকার ২০২৫ সালের এপ্রিল পর্যন্ত অজিত পাওয়ারের সরকারি বাসভবন ‘দেবগিরির জন্য ছত্রধারী ক্যাটারার্সকে বরাত দিয়েছে। শিণ্ডে ও ফড়নবিসের বাড়ির জন‌্য এর আগে বরাত পেয়েছে দুই সংস্থা– ছত্রধারী ক্যাটারার্স এবং শ্রী সুখসাগর হসপিটালিটি।
অর্ডারের অংশ হিসাবে, দেবগিরির ক্যাটারার ৪৪টি নিয়মিত আইটেম সরবরাহ করবে। যার মধ্যে রয়েছে গরম এবং ঠান্ডা পানীয় এবং স্ন্যাকস, যেমন– মারাঠি কাচোরি (১৫ টাকা), সাবুদানা ওয়াড়া (১৫ টাকা), দহি ভাদা (১৫ টাকা), দক্ষিণ ভারতীয় আইটেম, যেমন– বড়া সম্বার এবং টম‌্যাটো অমলেট (২৮ টাকা), মশলা দোসা (২০ টাকা) এবং নিরামিষ এবং চিকেন স্যান্ডউইচ (১৮-২০ টাকা)।
এই স্ন্যাকসগুলি ছাড়াও ক্যাটারাররা অতিথিদের জন্য নিরামিষ এবং আমিষ থালি (৭৫ এবং ৯৮ টাকা), নিরামিষ তরিয়ান এবং নন-ভেজিটেরিয়ান চিকেন এবং মাটন বিরিয়ানি (২৫ এবং ৩৫ টাকা) এবং বুফে (১৬০ টাকা) সরবরাহ করবে। তালিকায় ফ্রুট স‌্যালাডও (১৫ টাকা) রয়েছে। বর্ষা এবং সাগরে একই হার প্রযোজ্য। নির্দিষ্ট দিনে, ক্যাটারাররা ভিআইপি বিশেষ স্ন্যাকস (৪০ টাকা), বিশেষ মিক্সড ফ্রুট বাস্কেট (২০ টাকা), বিশেষ নিরামিষ চা বুফে (১০০ টাকা), উকডিচে মোদক (প্রতি পিস ১৫ টাকা) এবং কাজু মোদক (১৮ টাকা) সরবরাহ করবে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য