Monday, October 3, 2022
বাড়িরাজ্যহিংসার দ্বারা থানসা ও উন্নয়ন সম্ভব নয় : রেবতী

হিংসার দ্বারা থানসা ও উন্নয়ন সম্ভব নয় : রেবতী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৩১ আগস্ট :  এডিসি -র সদর দপ্তরে ভারতীয় জনতা পার্টির রাষ্ট্রীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সভা বানচাল করতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় যে অপ্রিতিকর ঘটনা সংঘটিত হয়েছে তার তীব্র নিন্দা জানায় বিজেপি। এই ঘটনার জন্য তিপ্রা মাথাকে দায়ী করেন সংসদ তথা ভারতীয় জনতা পার্টি সহ-সভাপতি রেবতী ত্রিপুরা। বুধবার প্রদেশ বিজেপি কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি বলেন জেপি নাড্ডার জনসভার আগের দিন প্রদ্যোৎ কিশোর দেববর্মন স্বাগত জানিয়ে সামাজিক মাধ্যমে বার্তা রেখেছিলেন।

কিন্তু পরের দিন সারারাজ্যে যে সমস্ত আক্রমণ ও সন্ত্রাসের ঘটনা সংগঠিত করেছে, তাতে ষ্পষ্ট হয়ে গেছে বর্তমান পরিস্থিতি প্রদ্যোৎ কিশোর দেববর্মনের হাতের বাইরে চলে গেছে। কিছু সি পি আই এম কর্মী সমর্থক তিপ্রা মথায় যোগদান করার পর এটা লাল মথা হয়ে গেছে। এই ঘটনার পর এখন পর্যন্ত প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মনের কোন বার্তা নেই, ফলে বিষয়টি সম্পূর্ণ স্পষ্ট হয়ে গেছে। কিন্তু ভারতীয় জনতা পার্টি শান্তি বজায় রেখে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে যায়। কারণ হিংসার দ্বারা থানসা এবং উন্নয়ন সম্ভব নয়। তিনি এদিন আরো বলেন, এ দিনের অতর্কিত হামলা করেছে তালিবানি কায়দায়।

সারা রাজ্যে মোট ৫৫ জন আহত হয়। এর মধ্যে সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। সকলকে দলীয়ভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এবং এখন যারা সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরছে তাদেরও আবার বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু মথার এই ধরনের ঘটনা সংঘটিত করা সম্পূর্ণভাবে সংবিধান ও গণতন্ত্র বিরোধী বলে জানান তিনি। বুধবার তিনি নিজে এবং মন্ত্রী রামপদ জমাতিয়া আহতদের বাড়ি ঘরে গিয়ে খোঁজখবর নেয়। তাদের বলা হয়েছে পুনরায় যদি এই ধরনের ঘটনার সংগঠিত করা হয় বা হুমকি দেওয়া হয় তাহলে পাল্টা সংঘর্ষ বা হিংসাত্মক ঘটনা সংঘটিত না করে পুলিশকে জানানোর জন্য বলা হয়েছে। পুলিশের সাথে সার্বিক বিষয় নিয়ে কথা বলা হয়েছে। পুলিশকে বলা হয়েছে যাতে আরো সক্রিয় হয়ে দায়িত্ব পালন করে। পুলিশ সবগুলোই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনার সাথে জড়িত দুর্বৃত্তরা এখন পালিয়ে আছে। তাদের বাড়ি গিয়ে পুলিশ খুঁজে পাচ্ছে না। কিন্তু এ ধরনের ঘটনা কোনোভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে জানান সাংসদ। আরো বলেন সেদিন রাস্তায় জ্যাম থাকায় এবং প্রখর রোদের কারণে জনসভায় টার্গেট অনুযায়ী সমাগম হয়নি। কিন্তু মানুষ বহু বাধা-বিপত্তি মধ্যেও সভায় পোছানোর চেষ্টা করেছে। এমনটাই বললেন শ্রী ত্রিপুরা। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এমডিসি বিমল কান্তি চাকমা, জনজাতি মোর্চার সাধারণ সম্পাদক ডেভিড দেববর্মা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য