Monday, May 16, 2022
বাড়িরাজ্যসংগঠনের জটিল পরিস্থিতির কারণে অন্তবর্তী সম্মেলন আইপি এফ টি -র

সংগঠনের জটিল পরিস্থিতির কারণে অন্তবর্তী সম্মেলন আইপি এফ টি -র

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১২ মে : গত ২ এবং ৩ এপ্রিল আই পি এফ টি-র পঞ্চম রাজ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে নি দল। তাই একমাস যেতে না যেতেই বৃহস্পতিবার একদিনের অন্তর্বর্তীকালীন সম্মেলন করতে বাধ্য হয়েছে দল। এর মধ্যে বিশেষ করে দলের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটি গঠন এবং কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা কমিটি গঠন হয় নি।

 আর এগুলি গঠন না হলে দলের গঠনতন্ত্র অফুরন্ত থেকে যায়। আজ পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সম্মেলনের পর নজরুল কলাক্ষেত্রে সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা বলেন আই পি এফ টি-র প্রাক্তন সভাপতি এন সি দেববর্মা। ২০০৯ আই পি এফ টি প্রতিষ্ঠার পর থেকে তিপ্রাল্যান্ডের দাবি করে আসছে। ২০১৮ সালে বিজেপি সাথে আলোচনার মাধ্যমে জোট শরিক হিসেবে ক্ষমতায় আসে। এবং এই বন্ধুত্বমূলক সম্পর্ক আগামী দিনেও বজায় থাকবে বলে জানান এন সি দেববর্মা। তবে সম্প্রতি দলের কয়েকজন কর্মী বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। তাদের উদ্দেশ্যে স্পষ্ট জানিয়ে দিতে চান অন্য কোন রাজনৈতিক দলের সাথে মিশে যাবে না আইপিএফটি। আই পি এফ টি দলে থেকে যারা বিভ্রান্ত সৃষ্টি করছে তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দল উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান তিনি।

কিন্তু সূত্রে খবর রাজ্য সম্মেলনে ঘুমে রেখে সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে নরেন্দ্র চন্দ্র দেববর্মাকে। যার ফলে গত সম্মেলনের পর থেকে দলে একপ্রকার অসন্তোষ সৃষ্টি হয়ে আছে। ইতিমধ্যে একাধিকবার নবনির্বাচিত সভাপতি মেবার কুমার জমাতিয়া প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মনের সাথে বৈঠক করেছেন। দলের অস্তিত্ব লড়াই যেখানে বর্তমানে সবচেয়ে বড় বিষয় ছিল, সেখানে দুই ভাগে ভাগ হয়ে গেছে বলে অভ্যন্তরীণ সূত্রে খবর। কারণ অনেকে চাইছে দলের সুপ্রিমো এন সি দেববর্মা’ই সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করার জন্য। আর যার পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার আগরতলা নজরুল কলাক্ষেত্র অডিটোরিয়ামে বৈঠকে বসেন এন সি পন্থী বলে সূত্রে খবর। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন না নির্বাচিত সভাপতি মেবার কুমার জমাতিয়া। ফলে একপ্রকার রহস্যের দানা বাঁধছে দলের অন্দরে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য