Tuesday, July 23, 2024
বাড়িরাজ্যলোকসভা নির্বাচনের জন্য দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর ফের চালু হলো মুখ্যমন্ত্রী...

লোকসভা নির্বাচনের জন্য দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর ফের চালু হলো মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৪ জুলাই : কেউ রোগে ভুগছে, কেউ আবার আর্থিক সমস্যায় ভুগছে, আবার কেউ অন্য কোন সমস্যা জর্জরিত। যখন আর কোন দিশা খুঁজে পায় না তখন মানুষ সহযোগিতার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়। যার নাম দেওয়া হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু। জানা যায়, মানুষের অভাব অভিযোগ ও সমস্যার কথা শুনা ও সমস্যা সমাধানের জন্য মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচি চালু করেছিলেন রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। নিয়মিত এই কর্মসূচি জারি রাখেন মুখ্যমন্ত্রী। সাধারন মানুষ তাদের সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচীতে সামিল হন।

কিন্তু লোকসভা নির্বাচনের কারনে দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ ছিল মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচি। দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয় মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচি। এইদিন মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি বাস ভবনে বহু মানুষ তাদের সমস্যা সমাধানের জন্য মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন। মুখ্যমন্ত্রী সাধারন মানুষের সমস্যার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনেন এবং দ্রুত সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন আধিকারিকদের। জায়গা জবর দখল সংক্রান্ত বিষয় নিয়েও এইদিন মানুষ মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হন। মুখ্যমন্ত্রী তৎক্ষণাৎ সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের নির্দেশ দেন উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। তবে এইদিন বেশিরভাগ মানুষ চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হন।

মুখ্যমন্ত্রী সকলের সমস্যা এক এক করে শুনেন এবং স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। পরে মুখ্যমন্ত্রী জানান অনেক ধরনের সমস্যা নিয়ে এইদিন মানুষ মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচীতে এসেছে। মানুষের সমস্যার কথা শুনে সরকারের পক্ষ থেকে যা যা করার তা করেছেন তিনি। এখনো পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচি থেকে দুই হাজারের অধিক মানুষ সুবিধা পেয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। এইদিন মুখ্যমন্ত্রী সমীপেষু কর্মসূচীতে মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর সচিব পিকে চক্রবর্তী, স্বাস্থ্য দপ্তরের সচিব, অধিকর্তা, জিবি হাসপাতালের এমএস সহ অন্যান্য আধিকারিকরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য