Saturday, June 15, 2024
বাড়িরাজ্যপ্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার জেরক্সের দোকানের কর্ণধার, পেছনে বড় রহস্য !

প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার জেরক্সের দোকানের কর্ণধার, পেছনে বড় রহস্য !

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৯ জুন : টি টি এডিসি -র প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার জেরক্সের দোকানের কর্ণধার। ধৃত ব্যক্তির নাম চয়ন সাহা। রাজধানীর অ্যাডভাইজার চৌমুহনী থেকে তাকে আটক করেছে পশ্চিম আগরতলা থানার পুলিশ। এ বিষয়ে পশ্চিম আগরতলা থানার ওসি জানান, টিটিএএডিসি প্রশাসনের অধীনে সাব জোনাল ডেপুটি অফিসার এবং ডেপুটি প্রিন্সিপাল অফিসার ১১০ টি পদে লোক নিয়োগের প্রশ্ন ফাঁস হয়ে যায় গত ৮ জুন। রবিবার ছিল এর পরীক্ষা। পরে পিছিয়ে দেওয়া হয় রবিবারের পরীক্ষা।

 এবং এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে যথারীতি থানায় মামলা দায়ের করেন ইন্টারভিউ বোর্ডের মেম্বার প্রদীপ দেববর্মা। তিনি অভিযোগ করেছেন জেরক্সের দোকানের কর্ণধার চয়ন সাহা এবং সুজয় ঘোষের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্তে নেমে গ্রেফতার করেছে চয়ন সাহাকে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসা বাদে পুলিশ জানতে পারে সেশন পেপার বানাতে বোর্ড চেয়ারম্যান দাতা মোহন জমাতিয়া চয়ন সাহার দোকানে গিয়েছিল। তখনই প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যায়। উল্লেখ্য, পরীক্ষায় বসার জন্য প্রায় ২৬ হাজার চাকুরি প্রত্যাশী আবেদন পত্র জমা দিয়েছিল।

 আগামী ১০ দিনের মধ্যে নতুন করে পরীক্ষার দিনক্ষণ ঘোষণা করে দেওয়া হবে। তবে পরীক্ষার আগের দিন আন্সার কি ফাঁস হয়ে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে টিটিএএডিসি প্রশাসনের ভূমিকা ও স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে জনমনে। কারণ ২০২১-এ এডিসি নির্বাচনে তিপ্রা মথা জয়ী হবার পর ৩ বছর পর প্রথম নিয়োগেই অনিয়ম উঠে আসে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পরীক্ষা বাতিল করে এডিসি প্রশাসন। এই উত্তরপত্র ফাঁস তিপ্রা মথা শাসিত এডিসি-র প্রশাসন চালাতে বেসামাল তা আঙ্গুল দিয়ে প্রমাণ করে দিচ্ছে। এমনটাই অভিযোগ বিরোধী ছাত্র সংগঠনগুলোর। কারণ অভিজ্ঞ নিয়োগ বোর্ড কর্তৃপক্ষ কেন সরকারি ছাপাখানা থেকে প্রশ্ন পত্র ছাপানো হয় নি ? এর পেছনে মূলত রহস্য কি ? ইঙ্গিত করছে গোপন বোঝাপড়া!

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য