Saturday, June 15, 2024
বাড়িজাতীয়তৃতীয়বার মসনদে মোদি

তৃতীয়বার মসনদে মোদি

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। ৯ জুন   :  শক্তি খুইয়ে অনেকখানি নমনীয় বিজেপি। রবিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে দেখা গেল তারই প্রতিফলন। শরিক দলগুলি থেকে এবার মোদির মন্ত্রিসভায় জায়গা পেল একাধিক নতুন মুখ। পাশাপাশি পুরানো একাধিক জনকে ছেঁটে ফেলে বিজেপির একাধিক সাংসদ প্রথমবার জায়গা পাকা করলেন মোদির মন্ত্রিসভায়।

 দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহরুর রেকর্ড ছুঁয়ে টানা তৃতীয়বার দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন নরেন্দ্র মোদি। রবিবার রাষ্ট্রপতিভবনে ঠিক ৭.২৩ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথবাক্য পাঠ করলেন নরেন্দ্র মোদি। এদিন তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। মোদির পাশাপাশি মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিতে দেখা গেল রাজনাথ সিং, অমিত শাহ, নির্মলা সীতারমণ, জেপি নাড্ডা, শিবরাজ সিং চৌহান, মনহরলাল খট্টর, কুমারস্বামী-সহ একঝাঁক নতুন মুখকে। তবে নয়া মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ পর্ব সম্পন্ন হলেও শরিকদের সমর্থনে গঠিত মোদি-৩ সরকারে রয়ে গেল ‘যদি’র আশঙ্কা।

২০১৯ সালের ৩০৩ আসন জিতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছিল বিজেপি। এবারের লোকসভা নির্বাচনে ক্ষমতা অনেকখানি কমেছে বিজেপির মাত্র ২৪০ আসন পাওয়া বিজেপি এবার শরিকদের সাহায্য নিয়ে সরকার গড়ছে। তিন দশকের পুরনো দুয়োরানি থাকা সঙ্গীরা গত ১০ বছরে ব্রাত্য থাকার পর হঠাৎ করেই পাওয়া শুরু করেছে বাড়তি গুরুত্ব। আসলে সহজ পাটিগণিতে প্রধানমন্ত্রী বুঝে গিয়েছেন, সরকার চালাতে গেলে এবার সঙ্গীদের চটানো যাবে না। পৌনে ১৩ বছর গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ও গত দশ বছর দেশের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন কখনওই মোদিকে জোটসঙ্গীদের নিয়ে চলতে হয়নি। বরাবরই বিজেপি ছিল একক সংখ্যাগুরু। তবে এবার জোট সঙ্গীদের ছাড়তে হয়েছে অনেকগুলি মন্ত্রক। পাশাপাশি এই জোটে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শরিক হয়ে উঠেছে টিডিপি ও জেডিইউ। এই দুই দলেরই মোট আসন ২৮। এই সংখ্যাই ম্যাজিক ফিগার ছোঁয়ার অন্যতম কারিগর। তাই এই দুই দলকে এবার বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে বিজেপি। দুই দল থেকে ৬ জন পেয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রক।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য