Tuesday, February 27, 2024
বাড়িখেলারিয়ালে যাওয়া নিয়ে এমবাপ্পের আবার ‘পিছুটান’

রিয়ালে যাওয়া নিয়ে এমবাপ্পের আবার ‘পিছুটান’

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১৩ ফেব্রুয়ারি: কিলিয়ান এমবাপ্পের দলবদল যেন বহু পর্বের এক ধারাবাহিক নাটক! শুরুটা হয়েছিল ২০২২ সালে। সে সময় মাদ্রিদে বলতে গেলে একটি পা দিয়েই ফেলেছিলেন পিএসজির ফরাসি তারকা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সেই পা তুলে নেন এমবাপ্পে, থেকে যান পিএসজিতেই।সবার ধারণা, ধারাবাহিক সেই নাটকের শেষ পর্ব দেখা যাবে এবার। পিএসজির সঙ্গে সম্পর্ক চুকিয়ে মৌসুম শেষে রিয়ালে নাম লেখানোর ব্যাপারে এমবাপ্পে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন, এমন খবরই শোনা গিয়েছিল কদিন আগে। কিন্তু নাটক নিয়েছে নতুন মোড়। আবার ‘পিছুটান’ এমবাপ্পের। দ্য অ্যাথলেটিকের খবর, চুক্তি নিয়ে রিয়াল যে প্রস্তাব দিয়েছে, সেটাতে দ্বিমত পোষণ করেছেন এ বিষয় নিয়ে কাজ করা এমবাপ্পের ঘনিষ্ঠ কেউ। ফলে আবার অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে পিএসজি থেকে এমবাপ্পের রিয়ালে যাওয়ার বিষয়ে।

এর আগে অ্যাথলেটিকই খবর দিয়েছিল, রিয়ালের চুক্তিতে কী কী শর্ত থাকবে, তা জানুয়ারির শুরু থেকেই জানতেন এমবাপ্পে। পিএসজির সঙ্গে তাঁর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩০ জুন। চুক্তি যেহেতু শেষ ছয় মাসের মধ্যে এসে পড়েছে, নিজের দলবদল নিয়ে সম্ভাব্য ভবিষ্যৎ দলের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন এমবাপ্পে।২০২২ সালে এমবাপ্পেকে যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, এবারের প্রস্তাবে অর্থ আর সুযোগ-সুবিধার পরিমাণ তার চেয়ে কম। কিন্তু এরপরও এমবাপ্পেই হবেন রিয়ালের সবচেয়ে বেশি বেতনের খেলোয়াড়। এমবাপ্পের এই দলবদলের আলোচনার সঙ্গে যুক্ত একটি সূত্র জানিয়েছে, ২০২২ সালে এমবাপ্পেকে দেওয়া প্রস্তাবে সাইনিং বোনাস ছিল ১৩ কোটি ইউরো। আর বার্ষিক বেতন ছিল ২ কোটি ৬০ লাখ ইউরো।

২৫ বছর বয়সী এমবাপ্পেকে ধরে রাখতে কয়েক মাস আগে পিএসজি তাঁর বেতন ও সুযোগ-সুবিধা অনেক বাড়িয়েছে। তাঁকে দীর্ঘ ও সংক্ষিপ্ত—দুই ধরনের চুক্তিরই অপশন দেওয়া হয়েছে। এই সুবিধাগুলো চাইলে এখনো নিতে পারেন এমবাপ্পে। সূত্র বলছে, প্যারিসের ক্লাবটিতে বর্তমানে এমবাপ্পের বার্ষিক বেতন ৭ কোটি ৫০ লাখ ইউরো। এটা আবার কর-টর কাটার পর এবং বোনাস ছাড়াই।এমবাপ্পের এবারের দলবদলের আলোচনায় সরাসরি যুক্ত আছেন রিয়ালের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। তবে এমবাপ্পেকে দেওয়া পিএসজির প্রস্তাবের ধারেকাছেও নেই রিয়ালের প্রস্তাব। কিন্তু সূত্র বলেছে, এমবাপ্পেকে পেতে সম্ভাব্য সবকিছু করতে চান পেরেজ। রিয়ালের সভাপতি এমবাপ্পেকে বোঝাচ্ছেন, মাদ্রিদের ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তি তাঁর প্রোফাইল ক্রীড়া-বিপণনের বাজারে অনেক ওপর দিয়ে যাবে। একটি সূত্র জানিয়েছে, পেরেজ এই দলবদল নিয়ে ‘অস্বাভাবিকভাবে খুব কাছ থেকে’ যুক্ত হয়েছেন। এরপরও যে চুক্তিটা সম্পন্ন হবে, তা নিয়ে কোনো নিশ্চয়তা নেই। অতীতেও এমবাপ্পেকে দলে ভেড়াতে রিয়ালের সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

জানুয়ারির শুরুতে এমবাপ্পের প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ করে একটি সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিলেন। ২০২২ সালের মে মাসে যেভাবে সব দৌড়াদৌড়ি বিফলে গিয়েছিল, এবার যেন সেটা নয়, এ কারণে তারা সব প্রক্রিয়া জানুয়ারির মাঝামাঝি সেরে ফেলতে চেয়েছিল। কিন্তু এমবাপ্পের প্রতিনিধিদল রিয়ালের সেই সময়সীমা মেনে নেয়নি। তারা আরও সময় চেয়েছিল। রিয়াল কর্তৃপক্ষ এখনো এমবাপ্পের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট কথা চায়।কিন্তু এমবাপ্পের প্রতিনিধিদল এ বিষয়ে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। একটি দল মনে করে, এমবাপ্পে পিএসজিদে যা পাচ্ছে, রিয়ালের প্রস্তাব এর চেয়ে অনেক নিচে। এ ছাড়া পিএসজিতে এমবাপ্পে তাঁর আয় আরও বাড়িয়ে নিতে পারবেন বলেও তাদের বিশ্বাস। অন্যদিকে পিএসজি কর্তৃপক্ষ মনে করছে, এমবাপ্পের সঙ্গে তারা চুক্তি নবায়ন করতে পারবে। পিএসজির সঙ্গে এমবাপ্পের বর্তমান চুক্তিতে একটি শর্ত আছে, তিনি চাইলেই মেয়াদ এক বছর বাড়িয়ে নিতে পারবেন।কে জানে, শেষ পর্যন্ত ২০২২ সালের মে মাসের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয় কি না!

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য