Monday, March 4, 2024
বাড়িখেলালেভানদোভস্কি-ইয়ামালের গোলে ফাইনালে বার্সা

লেভানদোভস্কি-ইয়ামালের গোলে ফাইনালে বার্সা

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১২ জানুয়ারি: সৌদি আরবের রিয়াদের কিং সাউদ ইউনিভার্সিটি স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার রাতে সেমি-ফাইনালে ২-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা।ফাইনালে আগামী রোববার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রেয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে কাতালান দলটি। বুধবার আতলেতিকো মাদ্রিদকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে শিরোপা লড়াইয়ের মঞ্চে পা রাখে কার্লো আনচেলত্তির দল।২০১৯-২০ মৌসুম থেকে চার দলের নতুন আঙ্গিকে হচ্ছে স্প্যানিশ সুপার কাপ। গত আসরে ফাইনালে রেয়ালকে হারিয়ে প্রতিযোগিতার রেকর্ড ১৪তম শিরোপা জিতেছিল বার্সেলোনা।ওসাসুনার বিপক্ষে অষ্টম মিনিটে প্রথম ভালো সুযোগ পায় বার্সেলোনা। বক্সের বাইরে থেকে ফেররান তরেসের ডান পায়ের শট পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়। ত্রয়োদশ মিনিটে লেভানদোভস্কির শট ঠেকান গোলরক্ষক।২৮তম মিনিটে সুযোগ হারান সের্হি রবের্তো। জুল কুন্দের পাস বক্সের ডান দিকে পেয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন ৩১ বছর বয়সী স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

৩৯তম মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় ওসাসুনা। বক্সের মাঝামাঝি থেকে আন্তে বুদিমিরের বাঁ পায়ের শট ফিরিয়ে দেন বার্সেলোনা গোলরক্ষক ইনাকি পেনা।প্রথমার্ধের শেষ দিকে হ্যামস্ট্রিংয়ে টান লাগায় মাঠ ছাড়েন বার্সেলোনার ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রাফিনিয়া। তার বদলি নামেন ১৬ বছর বয়সী ইয়ামাল।দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণে আধিপত্য ধরে রেখে ৫৯তম মিনিটে গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। ইলকাই গিনদোয়ানের থ্রু বল ধরে বক্সে ঢুকে প্রতিপক্ষের তিন খেলোয়াড়ের মাঝ থেকে ডান পায়ের শটে দলকে এগিয়ে নেন লেভানদোভস্কি।৬৮তম মিনিটে দারুণ এক আক্রমণে বক্সে ঢুকে শট নেন জোয়াও ফেলিক্স, ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন ওসাসুনার গোলরক্ষক। ৭৮তম মিনিটে বুদিমিরের আরেকটি প্রচেষ্টা রুখে দেন পেনা।যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ব্যবধান বাড়িয়ে জয় নিশ্চিত করেন ইয়ামাল। ফেলিক্সের পাস বক্সে পেয়ে বাঁ পায়ের শটে গোলটি করেন তরুণ স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য