Monday, February 6, 2023
বাড়িখেলাশঙ্কার মেঘ সরিয়ে অনুশীলনে রোনালদো

শঙ্কার মেঘ সরিয়ে অনুশীলনে রোনালদো

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, আগরতলা,২ ডিসেম্বর: আগের দিন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো অনুশীলন করেননি বলে ডালপালা মেলেছিল নানা গুঞ্জন। উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে অধিনায়কের খেলার সম্ভাবনা ‘ফিফটি-ফিফটি’ বলে পর্তুগাল কোচ ফের্নান্দো সান্তোস সে গুঞ্জন উস্কে দিয়েছিলেন আরও। গ্রুপ পর্বে দলের শেষ ম্যাচে রোনালদো খেলবেন কিনা, তা নিশ্চিত নয় এখনও। তবে ভক্তদের জন্য স্বস্তির খবর, অনুশীলনে ফিরেছেন তাদের প্রিয় তারকা।কাতারের রাজধানী দোহা থেকে বেশ ‍দূরে আল শাহনিয়া স্পোর্টস ক্লাব মাঠে সতীর্থদের সঙ্গে প্রস্তুতি নিয়েছেন রোনালদো। অনুশীলনে সতীর্থদের সঙ্গে বেশ খোশ মেজাজে দেখা গেছে পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে। এতটুকুতে অবশ্য ৩৭ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডে উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে শুক্রবার খেলার নিশ্চয়তা মিলছে না। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় গড়াবে ম্যাচটি।অবশ্য গ্রুপ পর্বে প্রথম লক্ষ্যটা পূরণ করে নিয়েছে পর্তুগাল। টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে নিশ্চিত করেছে শেষ ষোলোয় খেলা। দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে হার এড়াতে পারলে ‘এইচ’ গ্রুপের সেরা হয়ে নকআউট পর্বে উঠবে ২০১৬ সালের ইউরো জেতা দলটি।

আল শাহানিয়া স্পোর্টস ক্লাবের মাঠে বিকালের দিকে ফুরফুরে মেজাজে অনুশীলন সেরেছে পর্তুগাল। ঊরুর চোটের কারণে স্বাভাবিকভাবে অনুশীলনে ছিলেন না ডিফেন্ডার নুনো মেন্দেস। তবে দিনভর কৌতুহল ছিল বুধবার অনুশীলনে অনুপস্থিত রোনালদো এদিন প্রস্তুতিতে নামবেন কিনা, তা নিয়ে। বরাবরের মতো প্রাণবন্ত রোনালদো দেখা দিলেন অনুশীলনে।বিশ্বকাপের নকআউট পর্ব যত ঘনিয়ে আসছে, তারকা খেলোয়াড়দের নিয়ে চোট শঙ্কা নিয়ে ডালপালা মেলছে। কোচেরাও পরিষ্কার করে কিছু বলতে চাইছেন না। এমনকি ট্রেনিং সেশনগুলোতে গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য বাড়ছে বিধি-নিষেধ। পর্তুগালের এদিনের প্রস্তুতিতে গণমাধ্যমের জন্য বরাদ্দ ১৫ মিনিটে ফটোগ্রাফার ছাড়া ছবি তোলা, ভিডিও করার অনুমতি ছিল না কারো। সবকিছুতে যেন রাখ-ঢাক। অথচ দুদিন আগেও এসব বিধি-নিষেধের বালাই ছিল না!

বুধবার একাকী জিমে সময় কাটানো রোনালদো এদিন লেয়াও, ফের্নান্দেস, ফেলিক্সদের সঙ্গে শুরু থেকে প্রস্তুতিতে এলেন। জাগলিং, শুটিং প্র্যাকটিসও করলেন বেশ সাবলীলভাবে, স্বাচ্ছন্দ্যে। তেমন কোনো জড়তা দেখা গেল না তার মধ্যে। বরং সতীর্থদের সঙ্গে রোনালদোকে দূর থেকে যতটা হাস্যেজ্জ্বল দেখা গেল, তাতে মনে হলো চোট থাকলেও তা গুরুতর নয়। নকআউট পর্বের কঠিন পথের কথা ভেবে সান্তোস তাকে উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে খেলাবেন কিনা, সেটাই এখন প্রশ্ন।গ্রুপ সেরা হওয়া কিংবা জয়ের মোমেন্টাম ধরে রাখা ছাড়া উত্তর কোরিয়া ম্যাচ থেকে পুর্তগালের পাওয়ার কিছু নেই। তবে দারুণ কিছু পাওয়ার হাতছানি আছে রোনালদোর সামনে। ঘানাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের যাত্রা শুরুর ম্যাচে একবার জালের দেখা পেয়েছিলেন তিনি। বিশ্বকাপে তার বর্তমান গোল ৮টি। পর্তুগালের হয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোল করা কিংবদন্তি ইউজেবিওর থেকে মাত্র এক গোল দূরে আছেন তিনি।কাতার বিশ্বকাপও এখনও দেখতে পায়নি সেরা রোনালদোকে। ঘানা ম্যাচের ওই এক গোল ছাড়া আর জালের দেখা পাননি। উরুগুয়ে ম্যাচে সতীর্থ ফের্নান্দেসের আলোয় যেন আড়ালে ছিলেন তিনি। এখন তাই দেখার অপেক্ষা সে আড়াল ভাঙতে উত্তর কোরিয়া ম্যাচে রোনালদো খেলতে নামেন কিনা। নাকি আরও সতজে, সজীব রোনালদোকে নকআউট পর্বে পেতে এ ম্যাচে তাকে বিশ্রাম দেন পর্তুগাল কোচ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য