Friday, August 19, 2022
বাড়িরাজ্যসরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে টি ই সি এ -র বিক্ষোভ শহরে

সরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে টি ই সি এ -র বিক্ষোভ শহরে

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২১ জুলাই : অবিলম্বে জনবিরোধী বিদ্যুৎ আইন সংশোধনী বিল ২০২১ প্রত্যাহার করা, কয়েক গুণ বেশি দামে আমদানিকৃত কয়লা কিনতে বিদ্যুৎ কোম্পানিগুলিকে বাধ্য না করা, লোডশেডিং -এর সমস্যা দূর করা সহ ছয় দফা দাবিতে বৃহস্পতিবার রাজধানীর বটতলা এলাকায় বিক্ষোভের শামিল হয় অল ইন্ডিয়া ইলেকট্রিসিটি কনজ্যুমার্স অ্যাসোসিয়েশন ত্রিপুরা -র সদস্যরা। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের রাজ্য আহ্বায়ক সঞ্জয় চৌধুরী।

তিনি জানান, স্বাধীনতার পর বিদ্যুৎ ছিল অত্যাবশ্যক পরিষেবা। জনগণের করের টাকা দিয়ে গড়ে উঠেছিল বিদ্যুৎ পরিষেবা। ২০০৩ সালে আইন পাশ করে বিদ্যুৎ কে ব্যবসায়িক পণ্যে রূপান্তরিত করতে বেসরকারি করনে করার প্রয়াস শুরু হয়। ২০২১ সালে বিদ্যুৎ উৎপাদন পরিবহন এবং বন্টন তিন ভাগে ভাগ করে সম্পূর্ণভাবে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দিতে ২০০৩ সালের বিদ্যুৎ আইনকে সংশোধন করার জন্য কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকার একটি সংশোধনী বিল আনতে চেষ্টা করে। সারাদেশে এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ গড়ে উঠে। পরবর্তী সময় এই আইন পাশ করতে সক্ষম হয়নি। কিন্তু কেন্দ্রের বিজেপি সরকার লোকসভার বর্তমান বর্ষাকালীন অধিবেশন এই বিল পাশ করানোর চেষ্টা করছে। তাছাড়া সরকার দেশের কয়লা উত্তোলনকারী সংস্থাগুলিকে উত্তোলন কমিয়ে বিদেশ থেকে বহুগুণ বেশি দামে যে কয়লা আমদানি করছে। সেই কয়লা কিনতে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী সংস্থা গুলিকে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে উৎপাদনকারী সংস্থাগুলি বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যয় বৃদ্ধির অজুহাত তুলে বিদ্যুৎ মাশুল বহুগুণ বৃদ্ধি করতে চাইছে। তাই বিজেপির এ ধরনের জনবিরোধের নিতির প্রতিবাদে অল ইন্ডিয়া ইলেকট্রিসিটি কনজুমাস এসোসিয়েশন ধারাবাহিকভাবে আন্দোলন করে আসছে বলে জানান তিনি। সরকার যদি এ ধরনের জনস্বার্থে বিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসে তাহলে বিরক্ত আন্দোলনে নামবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য