Sunday, June 23, 2024
বাড়িরাজ্যমানুষের কষ্টার্জিত টাকা নিয়ে পালালো সংস্কার কর্মীরা

মানুষের কষ্টার্জিত টাকা নিয়ে পালালো সংস্কার কর্মীরা

xস্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২২ মে : ঋণ দেবার নাম করে মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হল তিন কোটি টাকা। এই দু্ঃসাহসিক ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে রাজধানীর ও এন জি সি সংলগ্ন নিমবাগ এলাকায়। প্রতারক সংস্থার নাম ডি এল এন্ড ভারত ফাইনান্স এন্ড ইউটিলিটি সার্ভিসেস। জানা যায়, রাজধানীর আমতলী থানার অধীন সায়েন্স সিটির পাশে নিমবাগ এলাকায় অফিস খুলেছিল। গত নভেম্বর মাসে হঠাৎ এই সংস্থা কাজকর্ম বন্ধ করে দেয়।

 ঋণ দেবার নামে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কমপক্ষে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই সংস্থা বলে অভিযোগ। এই প্রতারক সংস্থার মূল মাথা তথা ডি এল এন্ড ভারত ফাইনান্স এন্ড ইউটিলিটি সার্ভিসেসের ডিরেক্টর দেবাশীষ দে’র বিরুদ্ধে আমতলী থানায় মহকুমা প্রশাসক, পশ্চিম জেলার পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানোর পর সেই টাকা কোন এক রহস্যজনক কারনে উদ্ধার করতে পারছে না পুলিশ। বুধবার আমতলী থানায় দ্বারস্থ হয়ে এমনটাই অভিযোগ করেছেন এই সংস্থার কর্মচারী মনোজ দত্ত। তিনি অভিযোগ করেছেন, এই ফাইন্যান্স সংস্থায় মনোজ দত্ত সহ সাতজন কর্মী কাজ করতেন। প্রত্যেকের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন দেবাশীষ দে। প্রত্যেককে দিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ঋণ দেওয়ার নামে টাকা সংগ্রহ করেছে অভিযুক্তরা বলে অভিযোগ।

পুলিশ চাইলেই সেই টাকার হদিশ বের করতে পারে। সেই টাকা প্রাপকদের না দিয়ে উল্টো মনোজ দত্তকে’ই হুমকি দিচ্ছে অভিযুক্ত দেবাশীষ দে। এমতাবস্থায় সাংবাদিকদের সামনে বিষয়টি তুলে ধরেন এ সংস্থার কর্মচারী ‌মনোজ দত্ত। অভিযুক্ত দেবাশীষ দে’র আর্থিক প্রতারণার বিষয়টির পুলিশ সুষ্ঠু তদন্ত করার জন্য এবং সাধারণ মানুষের টাকা উদ্ধার করার জন্য। তিনি আরো জানিয়েছেন, প্রতারক দেবাশীষ দে -র প্রতারণার কারণেই এখন এই সংস্থার অফিসে কাজ করা প্রত্যেক সদস্য গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত হুমকির শিকার হচ্ছেন এবং নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য