Saturday, June 15, 2024
বাড়িরাজ্যমুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি করে আন্দোলনে নামতে চলেছে বাম ছাত্র যুব সংগঠন

মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি করে আন্দোলনে নামতে চলেছে বাম ছাত্র যুব সংগঠন

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২০ মে : গত ছয় বছর বিজেপি সরকারের সময়ে রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থা ভয়ংকর ভাবে আক্রান্ত। কিন্তু ২০১৮ সালের পর তারা রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন নিয়ে গুণগত শিক্ষার কথা বলেছে। এবং বিদ্যাজ্যোতি প্রকল্পকে মডেল হিসেবে ঘোষণা করেছিল। কিন্তু দেখাই যাচ্ছে বিদ্যাজ্যোতি ফলাফলে ছাত্রছাত্রীদের হতাশা জনক। সরকারের কারণে ছাত্রছাত্রীদের এই হতাশা জনক ফলাফল। এ বিষয়ে শিক্ষা দপ্তরের কোন ষ্পষ্টিকরণ নেই। তাই এর বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এসএফআই, টি এস ইউ, ডি ওয়াই এফ আই এবং টি ওয়াই এফ।

 আগামী ২১ থেকে ২৪ শে মে সারা রাজ্যে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও আইন-শৃঙ্খলার অবনতির বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে সরব হয়ে মিছিল, ডেপুটেশন, সভা করা হবে। মঙ্গলবার বিকাল পাঁচটায় ছাত্র যুব ভবনের সামনে জমায়েত হবে। সোমবার ছাত্র যুব ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই ঘোষণা দেন এস এফ আই রাজ্য সম্পাদক সন্দীপন দেব। এদিকে ডিওয়াইএফআই রাজ্য সম্পাদক নবারুণ দেব বলেন, রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বেহাল দশা। হাসপাতালে মিলছে না পর্যাপ্ত চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্য কর্মী। পাশাপাশি রোগীদের মিলছে না ঔষধ। এমনকি ডায়ালিসিস করতে যাওয়া রোগীদেরও মিলছে না পর্যাপ্ত পরিষেবা।

 জলের অভাবে তারা ডায়ালিসিস করতে পারছে না। অপরদিকে অপরাধমূলক ঘটনাও সংঘটিত হচ্ছে। বিশেষ করে পর্যটকরা রাজ্যে এসে চুরি ছিনতাইয়ের কবলে পড়ছে। পাশাপাশি রাজ্য নেশা সাম্রাজ্যের পরিণত হয়েছে। সম্পূর্ণভাবে আইন-শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। সমাজদ্রোহীরা রাজ্য দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। অপরদিকে কর্মসংস্থানের চরম অভাব রাজ্যের লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জি আর এস, ইঞ্জিনিয়ার কোন পদেই নিয়োগ হচ্ছে না। সব মিলিয়ে শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং কর্মসংস্থান ধ্বংস করে দিচ্ছে এই সরকার। এর জন্য দায়ী মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। কারণ তিনি বিভিন্ন দপ্তরের দায়িত্ব নিয়ে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। তাই মুখ্যমন্ত্রীকে অবিলম্বে পদত্যাগ করার প্রয়োজন বলে দাবি তুলছে রাজ্যের জনগণ। এমনটাই জানান ডি ওয়াই এফ আই রাজ্য সম্পাদক। সরকারের এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সকলকে ঘর থেকে বের হয়ে আসতে হবে বলে জানান তিনি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য