Tuesday, April 16, 2024
বাড়িরাজ্যমহিলার ছদ্মবেশী ২ বাংলাদেশী সহ আটক মোট ৭ বাংলাদেশী

মহিলার ছদ্মবেশী ২ বাংলাদেশী সহ আটক মোট ৭ বাংলাদেশী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২২ মার্চ : মানব পাচারের করিডোর হয়ে উঠেছে ত্রিপুরা রাজ্য। এন.আই.এ রাজ্যে থাবা বসিয়ে বেশ কয়েকজনকে জালে তুললেও বন্ধ নেই পাচার। মোটা অংকের বিনিময়ে সীমান্ত ডিঙিয়ে মানব পাচার চলছে। প্রায় প্রতিদিনই আগরতলা বাধারঘাট রেল স্টেশনে আটক হচ্ছে বাংলাদেশি পুরুষ নারী। শুক্রবার দুজন আটক হয়েছিল।

এরই মধ্যে শনিবার রাজধানীর কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দিয়ে আগরতলা থেকে চেন্নাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার চেষ্টা করেছিল সাতজন বাংলাদেশী। তাদের মধ্যে দুজন মহিলার ছদ্মবেশে রোওয়ানা হয়েছিল। কিন্তু পুলিশের নিয়মিত তল্লাশির সময় তাদের দেখে সন্দেহ হয়। তারপর তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে তারা সীমান্ত ডিঙিয়ে এদিনে ভারতে প্রবেশ করেছে। কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দিয়ে তারা চেন্নাই যেতে রওনা হয়েছে। কলকাতা থেকে তারা অন্য কোন এক পন্থা অবলম্বন করে চেন্নাই যাওয়ার জন্য কাঞ্চনজঙ্গা এক্সপ্রেস বেছে নিয়েছিল। তাদের সাথে একটি ১০ মাসের একটি শিশু সন্তানও রয়েছে। ধৃতদের নাম ইয়াসিন হাওলাদার (৪৪), মোহাম্মদ হোসেন (২০), শুকুর আলী হাওলাদার (১৯), ফারজেনা আক্তার (২০), রুমি বেগম (২১) এবং নয়ন হোসেন (২৫)। তাদের সকলকে আটক করে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। পুলিশের ধরনা তাদের কাছ থেকে উঠে আসবে নানা তথ্য।

তবে ধৃতদের সাথে জড়িত রয়েছে একটা বড় দালাল চক্র। এটা কোনভাবেই অস্বীকার করার সুযোগ নেই। যাদের জালে তুলতে পুলিশ পুরোপুরি ভাবে ব্যর্থ। তবে মহিলার ছদ্মবেশে যাওয়ার পেছনে মূলত কি কারণ থাকতে পারে সেটা নিয়ে দ্বন্দ্বে পুলিশ। লোকসভা নির্বাচন প্রক্রিয়া চলাকালীন সময়ে সীমান্ত ডিঙিয়ে ত্রিপুরায় প্রবেশ করে দেশের অন্যান্য স্থানের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার পেছনে মূলত কি কারন রয়েছে জানা নেই কারোর। বাকিটা তদন্ত সাপেক্ষ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য