Sunday, April 21, 2024
বাড়িরাজ্যবিপ্লব জামানা থেকে মানিক জামানা অনেক বেটার : সুদীপ

বিপ্লব জামানা থেকে মানিক জামানা অনেক বেটার : সুদীপ

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৪ মার্চ : জনজাতির স্বার্থ বিক্রি করে দিয়ে কেউ যদি আবেগ বুঝানোর চেষ্টা করে তাহলে তারা সত্যিকারের মঙ্গল চায় বলে মনে হয় না। আবেগ দিয়ে তিপ্রাসাদের ব্যবহার করছে। কারণ দেখেছে আনারসের মধ্যে পদ্মফুল ফুটেছে। বিজেপি এবং তিপরা মথাকে কামান দেগে বৃহস্পতিবার প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা বললেন বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন।

 তিনি বলেন, কংগ্রেস ছাড়া আর কোন রাজনৈতিক দল তিপ্রাসাদের মঙ্গল চায় না। কংগ্রেস জনজাতিদের জন্য বিভিন্ন সময় নানা দাবির তুলেছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে। তাই আজকের দিনেও দাঁড়িয়ে কংগ্রেস দাবি করে এডিসি -কে অধিক ক্ষমতা প্রদান করা এবং ককবরক ভাষার রোমান হরফে লেখার। তিপরা মথার প্রধানকে আক্রমণ করে তিনি আরো বলেন, লাস্ট ফাইট, সাংবিধানিক সমাধান সহ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দাবি তুলেছিল। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে এগুলি ক্ষমতার লোভ ছাড়া আর কিছুই ছিল না। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে সুদীপ রায় বর্মন আরো বলেন, আমরা মানুষের জন্য কাজ করতে বিরোধী খাতায় নাম লিখিয়েছে। তাই জনজাতিদের অধিকার নিয়ে আগামী দিনে লড়াই করবে বলে দাবি করেন শ্রী বর্মন।

সুদীপ রায় বর্মন বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের তীব্র বিরোধিতা করে কংগ্রেস। এর জন্য জনজাতি এক সংগঠন কয়েক বছর আগে মাধব বাড়িতে বিরোধিতা করে পুলিশের গুলি পর্যন্ত খেয়েছিল। গুরুতর আহত হয়েছেন একজন। তাই জনজাতি অংশের মানুষকে বেকুব ভাবার কোন কারণ নেই। কারণ রাজ্যে মানুষ সে সময় জঙ্গলে রাজত্ব দেখেছে। সেদিন ভুলে যায়নি। প্রতিমা ভৌমিকের হাত ধরে বিপ্লব কুমার দেবের আগমন হয়েছিল। এখন বিপ্লব কুমার দেব পেছন থেকে ছুরি মেরেছে। গত কয়েকদিন আগে প্রদ্যুৎ কিশোর দেববর্মণ এবং বিপ্লব কুমার দেব দুবাই গিয়ে এ বিষয়ে একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। তারপরই বিপ্লব কুমার দেব পশ্চিম আসনে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু এই বিপ্লব কুমার দেবের জামানা থেকে বর্তমানে আইন-শৃঙ্খলার দিকে মানিক জামানা অনেক ভালো। বিজেপি আবার সেই বিপ্লবের ভয়াবহ সন্ত্রাসের পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে চাইছে। এগুলি মানুষ বরদাস্ত করবে না। এভাবে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন সুদীপ রায় বর্মন। পাশাপাশি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস জয়ী হলে জনগণকে কি কি সুযোগ সুবিধা প্রদান করবে তা সংবাদ মাধ্যমের সামনে তুলে ধরেন বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য