Wednesday, June 29, 2022
বাড়িরাজ্যলাভে পরিচালিত হচ্ছে ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম

লাভে পরিচালিত হচ্ছে ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৯ জানুয়ারি: রাজ্যে পুনর্জীবিত হচ্ছে ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম। ১৯৮০ সালে গঠিত হয়েছিল ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম। দীর্ঘ সময় লাভের মুখ দেখেনি নিগম। কিন্তু ২০২০-২১ সালের অর্থ বছরে লাভের মুখ দেখে ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম। বীরচন্দ্র ষ্টেট লাইব্রেরীর টি কর্নারে রবিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান চা উন্নয়ন নিগমের চেয়ারম্যান সন্তোষ সাহা। ২০২০-২১ অর্থ বছরে নিগমের আয় হয়েছে ১৪ হাজার কোটি টাকার উপর।

 আর ব্যয় হয়েছে ১৩ হাজার কোটি টাকার কিছু বেশী। দায়িত্ব গ্রহণের পর চা উৎপাদন করা হত ১ লক্ষ ৭২ হাজার কেজি। যা ২০২১-২২- এ গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৭ লক্ষ ৮৫ হাজার ৪৯৪ কেজিতে। এটা সম্ভব হয়েছে দুর্গা বারি ও ব্রক্ষ্মকুন্ড কারখানার যৌথ প্রচেষ্টায়। আগে চা শ্রমিকদের মজুরি ছিল ১০৫ টাকা। দায়িত্ব গ্রহণের পর এই মজুরি বৃদ্ধি করে করা হয়েছে ১৪৬ টাকা বলেও জানান তিনি। শ্রমিক ও কর্মীদের নিরলস পরিশ্রম ও মুখ্যমন্ত্রীর উৎসাহে লাভ জনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম। এই সফলতার পর শ্রমিকদের মজুরি ১ জানুয়ারী থেকে ১৫ টাকা করে বৃদ্ধি করা হয়েছে। চা উন্নয়ন নিগমের অধীন কাজ করা ৫৫০ জন শ্রমিক এই সুবিধা পাচ্ছে। চা উন্নয়ন নিগমের মজুরি বৃদ্ধির পাশাপাশি দুর্গাবাড়ি ও মনুভ্যালী চা বাগান কর্তৃপক্ষ তাদের শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি করেছে। শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি পেয়ে ১০৫-১৪৬ টাকা পর্যন্ত হয়েছে বলে জানান তিনি। আরো বলেন রাজ্যে কয়লা সংকট লেগে থাকে তাই ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগম নয়া উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। আগামী মরশুম মার্চ ও এপ্রিল মাস থেকে টি এন জি সি এল -এর মাধ্যমে চা উৎপাদন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গ্যাসের মাধ্যমে চা উৎপাদন করা হবে। ইতিমধ্যে টি এন টি সি এল -এর সাথে চুক্তি হয়ে গেছে। আগামী মরশুম থেকে টি এন জি সি এল -এর উদ্যোগের দুর্গাবাড়ি চা বাগানে সেন্ট্রাল প্রসেসিং ফ্যাক্টরিতে চা উৎপাদন করা হবে বলে জানান তিনি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য