Tuesday, May 28, 2024
বাড়িরাজ্যআগাম পরীক্ষা করে থ্যালাসেমিয়া নিশ্চিত করা বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা সরকারের : মুখ্যমন্ত্রী

আগাম পরীক্ষা করে থ্যালাসেমিয়া নিশ্চিত করা বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা সরকারের : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৮ মে :  থ্যালাসেমিয়া রোগ নিয়ে সতর্ক হচ্ছে রাজ্য সরকার। এ বিষয়ে গুরুত্ব আরো করলেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। কারণ থ্যালাসেমিয়া একটি রক্ত সম্পর্কিত রোগ। বংশ পরম্পরা ক্রমে এই রোগ ছড়ায়। কিভাবে প্রতিরোধ করা যায় তাঁর উপর সচেতনতা প্রয়োজন। থ্যালাসেমিয়া , হিমোফিলিয়া মত রোগ গুলি সম্পর্কে আগাম পরীক্ষা করে তা নিশ্চিত করা বাধ্যতা মূলক করার পরিকল্পনা নিচ্ছে সরকার।

 একই সঙ্গে কম বয়সে বিয়ে দেওয়ার একটা প্রবণতা উত্তর জেলায় বেশী। সেই ক্ষেত্রে বয়সের সঠিক প্রমান পত্র বাধ্যতা মূলক করার উদ্যোগও নেওয়া হচ্ছে। সবটাই করা হবে মানুষের স্বার্থে। এতে বিরোধীতার প্রশ্ন আশা সঠিক নয়। সোমবার ইন্ডিয়ান একাডেমী অফ পেডিয়াট্রিক ও ন্যাশনাল হেলথ মিশন ত্রিপুরা এবং থ্যালাসেমিয়া সোসাইটির যৌথ উদ্যোগ ওয়াল্ড থ্যালাসেমিয়া ডে উদযাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। ত্রিপুরা ইনস্টিটিউট অফ প্যারামেডিকেল সাইন্স -এ এই দিনটি উদযাপন করা হয়। ভারতবর্ষে প্রায় ১.৫ থেকে ২ লক্ষ মানুষ থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত।

 প্রায় ৫ কোটি থ্যালাসেমিয়ার বাহক রয়েছে। দেশে ১০ থেকে ১৫ হাজার শিশু থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। রাজ্যের ৩৮৩ জন রোগী রক্তনেন নিয়মিত। আজকের পড়ুয়া কালকে শিক্ষক হবেন। কিন্তু যারা আগামী দিনের ব্যাটেন হাতে তুলে নিচ্ছেন তাদের দায়িত্ব রয়েছে সেই মোতাবেক তাদের প্রজন্মকে বোঝানোর। তাহলে দূরত্ব থাকবে না। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য দপ্তরের সচিব ডাঃ দেবাশীষ বসু , স্বাস্থ্য দপ্তরের অধিকর্তা ডাঃ শুভাশিস দেববর্মা সহ অন্যান্যরা। নেশা মুক্ত ত্রিপুরা গড়ার আহ্বান জানিয়েছে সরকার। তাই এই আহবানকে সার্থক করতে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান মুখ্যমন্ত্রী। ত্রিপুরা ইনস্টিটিউট অফ প্যারামেডিকেল সাইন্স-র একটি হলের সমস্যা রয়েছে। এই ক্ষেত্রে টি এম সি- তে একটি হল নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রয়োজনে সেই হল যাতে তারা ব্যবহার করতে পারেন তার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য