Wednesday, June 12, 2024
বাড়িরাজ্যট্যুর অপারেটর এবং বিভিন্ন হোটেলে মালিকদের নিয়ে মন্ত্রীর বৈঠক

ট্যুর অপারেটর এবং বিভিন্ন হোটেলে মালিকদের নিয়ে মন্ত্রীর বৈঠক

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৮ মে : রাজ্যের পর্যটন শিল্পকে আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তুলতে সোমবার মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরীর পৌরহিত্যে ট্যুর অপারেটর এবং বিভিন্ন হোটেলে মালিকদের নিয়ে এক বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

রাজধানীর গীতাঞ্জলি গেস্ট হাউসে হয় বৈঠক। পর্যটন কেন্দ্রগুলো আরো কিভাবে আকর্ষণীয় করে তোলা যায় এবং সেসব পর্যটন কেন্দ্রে যাতে সহজে পর্যটকরা পৌঁছাতে পারে তার জন্য হোটেল কর্তৃপক্ষের কি দায় দায়িত্ব রয়েছে সে বিষয়ে আলোচনা হয়। মন্ত্রী বলেন, রাজ্যের পর্যটন ক্ষেত্র একটি সম্ভাবনাময় শিল্প। বর্তমানে ত্রিপুরা রাজ্যে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ট্যুর অপারেটররা অন্তর্মুখী ও বিদেশগামী ট্যুর পরিচালনা করে থাকেন।

 এ সব ট্যুর অপারেটরদের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য পর্যটন দপ্তরের সাথে সমন্বয় রেখে সঠিক পরিষেবা প্রদানের জন্য বৈঠক। কারণ বিভিন্ন ট্যুর অপারেটরদের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য সঠিক মনিটরিং না থাকলে অনেক সময় পর্যটকরা তাদের কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হন। যেটা কোনভাবেই কাম্য নয়। রাজ্যে পর্যটন শিল্প বিকাশের লক্ষ্যে এবং পর্যটকদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড সহ হোটেল, রিসোর্ট ব্যবসার সাথে জড়িত সংশ্লিষ্ট সকলকে রাজ্যের পর্যটন দপ্তরের সাথে সমন্বয় রেখে আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যেতে হবে বলে জানান মন্ত্রী। পর্যটক মানেই ধনী এই ধারণা ঠিক নয়। তাই রাজ্যে আগত পর্যটকদের স্থানীয়ভাবে আরো কম দামের পরিষেবা প্রদানের লক্ষ্য গ্রহণ করতে হবে। এখন ইকো টুরিজমকে সরকার বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। প্রকৃতিকে ঠিক রেখে পর্যটককে আকৃষ্ট করতে আর নানা ইভেন্টভিত্তিক পর্যটনের ব্যবস্থা করতে। পর্যটন কেন্দ্র গুলি সঠিকভাবে পরিচালনা হলে কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা হবে। সেদিকে গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে চলেছে সরকার। গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পর্যটন দপ্তরের সচিব উত্তম কুমার চাকমা, পর্যটন দপ্তরের অধিকর্তা তপন কুমার দাস সহ বিভিন্ন ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট ব্যবসার সাথে বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য