Monday, February 6, 2023
বাড়িরাজ্যকংগ্রেস কর্মীকে মারধরের ঘটনায় গ্রেপ্তার কর্পোরেটর, বুথ সভাপতি সহ পাঁচজন

কংগ্রেস কর্মীকে মারধরের ঘটনায় গ্রেপ্তার কর্পোরেটর, বুথ সভাপতি সহ পাঁচজন

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২২ জানুয়ারি : জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে ভোটাধিকার চাইতে যাওয়া কর্মীকে রাতের বেলা পেটালো গেরুয়া বাহিনীর দুর্বৃত্তরা। জাতীয় নির্বাচন কমিশনের কঠোর নির্দেশে পূর্ব থানার পুলিশ ৫১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা কর্পোরেটর সুশান্ত ভৌমিক, এলাকার বুথ সভাপতি টিংকু দেবনাথ সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে আদালতে তুলে রবিবার। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, সুভাষ নগর এলাকায় শনিবার রাতে কংগ্রেস কর্মী পঙ্কজ বর্মনের উপর বিজেপি আশ্রিত কিছু দুর্বৃত্ত আক্রমণ সংগঠিত করেছে বলে অভিযোগ।

পরবর্তী সময়ে এ বিষয়ে সে কংগ্রেস কর্মী পূর্ব থানার পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করলে তদন্তে নেমে অভিযুক্ত কর্পোরেটর সুশান্ত ভৌমিক, বিজেপির বুথ সভাপতি টিংকু দেবনাথ, খোকন দাস, ভাস্কর পালকে জালে তুলে। কিন্তু এদিকে আহত কংগ্রেস কর্মীর কাছ থেকে জানা যায় বুথ সভাপতি টিংকু দেবনাথ এবং এলাকার কাউন্সিলর সুশান্ত ভৌমিকের নেতৃত্বে এলাকার রিংকু দেবনাথ, শুভ্র দাস, খোকন দাস, সুবীর সাহা, শান্তা দে, প্রবীর সাহা সহ বিজেপি দলের কিছু দুর্বৃত্তরা তাকে এদিন বাড়ির লাইট বন্ধ করে মারধর করেছে। আহত কংগ্রেস কর্মীর আরো অভিযোগ এদিন রাতের বেলা তার মার চোখ অপারেশন করে বাড়ি যাওয়ার পরে এই ঘটনাটি সংঘটিত করেছে। রক্ষা পায়নি তার মাও, এমনকি তার বোনের স্বর্ণালংকার ছিনতাই করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ কংগ্রেস কর্মীর। আরো জানা যায় এদিন বিজেপি কর্মীরা এই কংগ্রেস কর্মীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে যায় যদি এলাকায় থাকতে চায় তাহলে বিজেপি করতে হবে।

 নাহলে বাড়ি ঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেবে বলে হুমকি দেয় বলে অভিযোগ কংগ্রেস কর্মীর। তিনি আরো জানান, বর্তমানে তিনি কোথায় যাচ্ছেন এবং কি করছেন সেগুলিও তারা মোবাইলে রেকর্ড করে তাকে হুমকি দিচ্ছে। প্রতিবেশীদের সাথে সে যোগাযোগ রাখতে পারে না। কারোর সাথে কথা বললে তাকে সন্দেহ করে এভাবেই বিভিন্ন সুরে হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এদিকে আরো খবর এলাকার বিজেপির পক্ষ থেকে একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ কংগ্রেস কর্মী পঙ্কজ বর্মনকে গ্রেপ্তার করেছে। এদিকে চন্দ্রপুর এলাকার বাসিন্দা রতন দাস কংগ্রেসের দলীয় পতাকা নিয়ে অটো গাড়ি করে যাওয়ার সময় মারধর করে দুর্বৃত্তরা। এমনকি দলীয় প্রচার সজ্জাগুলি পর্যন্ত নষ্ট করে দেয় দুর্বৃত্তরা। ভেঙে দেয় দলীয় পতাকা বহন করা রতন দাসের গাড়ি। আরো জানা যায় যারা এই ঘটনা সংঘটিত করেছে তারা এলাকারই বিজেপি দলের কর্মী সমর্থক। এলাকার কংগ্রেস কর্মীদের আরো অভিযোগ বিজেপি কর্মীদের জন্য দলীয় পতাকা লাগানো যাচ্ছে না।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য