Wednesday, February 8, 2023
বাড়িরাজ্যনির্বাচন ঘনিয়ে আসতেই কল্পতরু সরকারের একাধিক সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভায়

নির্বাচন ঘনিয়ে আসতেই কল্পতরু সরকারের একাধিক সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভায়

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২ ডিসেম্বর : পূর্ত দপ্তরের মাধ্যমে সিভিল, ম্যাকানিক্যাল, ইলেক্ট্রিক্যালে ত্রিপুরা ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রুপ এ- তে ১০০ জন  এবং গ্রুপ বি -তে ১০০ জন জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করা হবে। এর আগে গ্রুপ -এ এবং গ্রুপ -বি তে ২০০ জন জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। নতুন করে আরও ২০০ জন জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ারকে নিয়োগের সিদ্ধান্তের ফলে মোট ৪০০ জন জুনিয়ার ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করা হবে। এই নিয়োগ পক্রিয়া সম্পন্ন করবে টি পি এস সি। এতে বেকার ইঞ্জীনিয়ারদের কর্মসংস্থানের পথ খুলে গেছে বলে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। ডিগ্রী ও ডিপ্লোমা –দুই ক্ষেত্রেই সুযোগ পাবে। বৃহস্পতিবার মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা জানার মধ্যে সুশান্ত চৌধুরী।

তিনি মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলনে আরো বলেন, গরিব কৃষকরা যাতে ধান উৎপাদনে উৎসাহ হারিয়ে না ফেলে তার জন্য রাজ্য সরকার এম এস পি মূল্যে এফ সি আই-র মাধ্যমে ধান ক্রয় শুরু করে। ২০১৮-১৯ সালে দুই বার ধান ক্রয় করা হয়। যার প্রতি কেজি মূল্য ছিল ১৭ টাকা ৫০ পয়সা। ২০১৯-২০ সালে এই মূল্য বেড়ে দাঁড়ায় ১৮ টাকা ১৫ পয়সায়। ২০২০-২১ এ হয় ১৮ টাকা ৬৮ পয়সা। ২০২১-২২ এ ১৯ টাকা ৪০ পয়সা প্রতি কেজিতে ধান ক্রয় করা হয়। এবার ২০২২-২৩ সালে ২০ টাকা ৪০ পয়সা প্রতি কেজি দরে ধান ক্রয় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য মন্ত্রীসভা। আগামী কিছু দিনের মধ্যে রাজ্য জুড়ে শুরু হবে ধানক্রয় করার প্রক্রিয়া। এটা একটা যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত বলে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। এখনো পর্যন্ত ১.৩১ লক্ষ মেট্রিক টন ধান কৃষকদের কাছ থেকে ক্রয় করা হয়েছে। ২৪৩.৯৯ কোটি টাকার ধান ক্রয় করেছে সরকার। এবার ৩৫ হাজার মেট্রিক টন ধান ক্রয় করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।

গ্রুপ এ এবং গ্রুপ বি-র সরকারী কর্মচারীদের এতদিন বহিঃরাজ্যে চিকিৎসা করাতে হলে রেফার নিয়ে যেতে হত। সরকারী স্বীকৃত হাসপাতাল গুলিতে চিকিৎসা করানোর পর চিকিৎসা সংক্রান্ত বিল পেত কর্মচারীরা। মন্ত্রীসভা এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গ্রুপ এ এবং গ্রুপ বি-র সরকারী কর্মচারীদের বহিঃরাজ্যে চিকিৎসা করানোর ক্ষেত্রে রেফারের প্রয়োজন নেই। সরকারী স্বীকৃত হাসপাতাল গুলিতে কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসা করানো হলে পরবর্তী সময় সেই বিল প্রদান করার। একই সঙ্গে যে সমস্ত কর্মচারী বহিঃ রাজ্যে কর্মরত অবস্থায় রয়েছেন  তারাও চিকিৎসা পরিষেবা নিলে পরবর্তী সময় চিকিৎসা সংক্রান্ত বিল পাবেন। অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীরা বহিঃ রাজ্যে চিকিৎসা করালে চিকিৎসা বাবদ ৫ বছরে আগে পেতেন ১৫ হাজার টাকা। এখন তা বৃদ্ধি করে করা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। গ্রুপ- সি এবং গ্রুপ ডি -র কর্মচারীরা ক্যান্সার ও কার্ডিও চিকিৎসার বিল পাবেন। মন্ত্রীসভার সিদ্ধান্তের কথা জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। সমস্ত ত্রিপুরা ভবনের কর্মচারীরাও এই সুবিধা পাবেন বলে জানান তিনি।

টেকনো ইন্ডিয়াকে রাজ্যে একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রীসভা। শহর সংলগ্ন তাদের বর্তমান প্রতিষ্ঠানে এই বিশ্ববিদ্যালয় চালু হবে। এর জন্য রাজ্য সরকারের সঙ্গে একটি মৌ স্বাক্ষর করবে টেকনো ইণ্ডিয়া। আগামী কিছু দিনের মধ্যে বিধানসভার অধিবেশন বসতে চলেছে। সেই অধিবেশনে এর একটি বিল আনা হবে বলে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য