Wednesday, November 30, 2022
বাড়িরাজ্যগণধর্নায় বসবে জুটমিলের শ্রমিকরা

গণধর্নায় বসবে জুটমিলের শ্রমিকরা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৬ নভেম্বর : জুটমিল শ্রমিকদের দেনা পাওনা মিটিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের কোন নজর নেই। বর্তমান সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার আগে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তা পালন করা তো দূরের কথা, এ সরকারের কোন মন্ত্রীর সাথে আলোচনা করারও কোনো সুযোগ পাচ্ছে না কর্মীরা। সরকারের এ ধরনের বঞ্চনার অবস্থা দেখে আগামী ১৮ নভেম্বর তিন ঘন্টার গণধর্নায় শামিল হতে চলেছে জুটমিল কর্মচারীরা।

 রবিবার আগরতলার প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান ত্রিপুরা জুটমিল শ্রমিক কর্মচারী যৌথ আন্দোলন কমিটির কনভেনার ধনমনি সিংহ। তিনি বলেন, জুটমিলের শ্রমিকদের ১৯৯৬ সালের এক জানুয়ারি থেকে সমস্ত দেনা পাওনা মিটিয়ে দেওয়ার জন্য উচ্চ আদালত ও সর্বোচ্চ আদালত রায় দিয়েছে। গত ২১ সেপ্টেম্বর শেষ রায়ে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জুটমিলের শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন ভাতা ১৯৯৬ সাল থেকে প্রদানের। কিন্তু সরকার এই বিষয়ে নীরব। বিগত দিনে এই নিয়ে বহু আন্দোলন সংগঠিত করা হয়েছিল। বর্তমান সরকার আপিল মামলা করলেও তা নাকচ করে আদালত।  অথচ তারপরেও সরকারের কোন সদর্থক মনোভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। তারই প্রতীবাদে আগামী ১৮ নভেম্বর ওরিয়েন্ট চৌমুহনীতে ২ ঘণ্টার গনধর্না সংগঠিত করার ঘোষণা দিল ত্রিপুরা জুটমিল যৌথ আন্দোলন কমিটি।

গত ১৫ দিন আগে রাজ্যের মুখ্য সচিবের উদ্দেশ্যে একটি চিঠি দিয়ে দাবি জানানো হয়েছিল যাতে বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে দেখে আদালতের নির্দেশ কার্যকর করা হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি। তাই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী ১৮ নভেম্বর গণধর্নার মঞ্চে থেকে একটি প্রতিনিধি দল পুনরায় মুখ্য সচিবের সাথে দেখা করে আদালতের রায়ের নথি গুলি তুলে দিয়ে দাবি জানাবেন। তারপরও যদি কোন সমাধানের সূত্র না বের হয় তাহলে আগামী দিনের আন্দোলনে নামবে বলে হুঁশিয়ারি দেন। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ দুনিয়া ছাড়া উপস্থিত ছিলেন যৌথ কমিটির সম্পাদক অমিতাভ দাশ, তরুণ চক্রবর্তীর সহ সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য