Tuesday, October 4, 2022
বাড়িরাজ্যমুখ্যমন্ত্রী সুস্থ শৈশব, সুস্থ কৈশোর অভিযান ৩.০ অভিযানের সূচনা

মুখ্যমন্ত্রী সুস্থ শৈশব, সুস্থ কৈশোর অভিযান ৩.০ অভিযানের সূচনা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৩ সেপ্টেম্বর : শনিবার রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সুস্থ শৈশব, সুস্থ কৈশোর অভিযান ৩.০ অভিযানের রাজ্য ভিত্তিক সুচনা হয়। মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা প্রদীপ উজ্জ্বলন করে এদিন অভিযানের শুভ সূচনা করেন। এই অভিযানের মধ্য দিয়ে মূলত শূন্য থেকে ১৯ বছর বয়সীদের এক সাথে ৬ টি স্বাস্থ্য পরিষেবা এক সাথে প্রদান করা হবে। পরে অনুষ্ঠানে আলোচনা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন বর্তমানে যারা শিশু কিংবা কিশোর আগামিদিনে তারা দেশের ভবিষ্যৎ। তাই তারা যেন সঠিক ভাবে বেরে উঠতে পারে এবং এগিয়ে যেতে পারে তার ব্যবস্থা করে সকলের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

 আগে এই ধরনের কোন ব্যবস্থা ছিল না। বর্তমানে সরকার চাইছে প্রতিটি মানুষ যেন সুস্থ ভাবে বাঁচতে পারে। তামাক সেবন থেকে বিরত থাকার জন্য বারে বারে সচেতন করা হচ্ছে মানুষকে। বর্তমানে শিশু কিংবা কিশোরদের মধ্যে নেশার প্রবণতা দেখা দিচ্ছে সব জায়গায়। নেশা সামগ্রী সেবন করলে স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানের কোন মানে থাকে না বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন শুধু মাত্র টিকা প্রদান করলে হবে না। যেখানে যেখানে ড্রাগস সেবনের প্রবণতা বেশি, সেই সকল জায়গা গুলি চিহ্নিত করে দেখানে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। এই ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য দপ্তরকে উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন সরকার সুস্থ ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা গড়ার লক্ষ্যে কাজ করছে। সরকার কিংবা দপ্তরের একার পক্ষে এই কাজ করা সম্ভব নয়। রাজ্যের সকল অংশের মানুষকে সচেতন থাকতে হবে। এইদিনের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা বেশ কয়েকজন শিশুর হাতে আয়রন ট্যাবলেট, অ্যালবেনডাজোল ট্যাবলেট, ওয়ারেসের প্যাকেট তুলে দেন। অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্য সচিব জে.কে সিনহা, স্বাস্থ্য দপ্তরের সচিব, অধিকর্তা, শিক্ষা দপ্তরের অধিকর্তা সহ অন্যান্যরা। অনুষ্ঠানে আশাকর্মী, অঙ্গনওয়ারী কর্মী, রাজধানীর বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী সহ সাধারন মানুষের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যনীয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য