Sunday, October 2, 2022
বাড়িরাজ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠদের দাপাদাপিতে মন্ডল সভাপতির পদত্যাগের আর্জি

মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠদের দাপাদাপিতে মন্ডল সভাপতির পদত্যাগের আর্জি

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৭ আগস্ট : কৈলাসহরে শাসক দলের গোষ্ঠী কোন্দল চরমে।‌ মাত্র পাঁচ মাস মন্ডল সভাপতি পদে থেকে পদত্যাগ চাইলেন রণবীর ভট্টাচার্য। তিনি বুধবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তেমন স্পষ্ট কিছু না বললেও, আকার ইঙ্গিতে বুঝাতে চেয়েছেন, কৈলাশহর মন্ডল সভাপতিকে না জানিয়ে দলীয় সভা করা হয় এবং সভার আগে মাইক দিয়ে সভার প্রচার করা হয় সভায় মন্ডল সভাপতি উপস্থিত থাকবেন। কিন্তু, বাস্তবে তিনি এসব দলীয় সভা সম্পর্কে কিছুই জানেন না। সভার আগে তাকে না জানিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এসব নিয়ে তিনি কয়েকবার দলের শীর্ষস্থরের নেতৃত্বদের গোচরে নিয়েছেন। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হল কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, কৈলাসহরের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতে সরাসরি মন্ত্রী ঘনিষ্ঠরা দুর্নীতি করে যাচ্ছেন এবং দিনের পর দিন ডি ডব্লিউ এস দপ্তরেও মন্ত্রী ঘনিষ্ঠরা প্রকাশ্যেই দুর্নীতি করে চলেছে বলে অভিযোগ তুলেন তিনি।

ফলে কাজ করার মানসিকতা তিনি হারিয়ে ফেলেছেন। তাই, তিনি দলের এসব কান্ড দেখে নীরবে নিভৃতে সরে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন বলে জানা যায়। ইতিমধ্যে পদের সভাপতিকে চিঠি দিয়ে পদত্যাগের আর্জি জানিয়েছেন তিনি। সূত্রের খবর, রনবীর ভট্টাচার্য গত ২ আগস্ট কৈলাসহর শহরের প্রধান ডাকঘর থেকে পদত্যাগপত্রটি প্রদেশ সভাপতি ডাঃ মানিক সাহা এবং বিজেপি ঊনকোটি জেলা সভাপতি পবিত্র দেবনাথের কাছে পাঠান। আরো জানা যায়, চিঠি প্রেরণের পর এখন পর্যন্ত দলের কোন শীর্ষ নেতৃত্ব রণবীর ভট্টাচার্যের কাছ থেকে এ বিষয়ে কোনো ধরনের আলোচনা করে নি। কিন্তু মাত্র পাঁচ মাসে মাথায় একজন মন্ডল সভাপতিকে পদত্যাগের আর্জি জানাতে হয়েছে, এর দ্বারা স্পষ্ট দলের সাংগঠনিক অবস্থান বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আগামী কয়েক মাস পর বিধানসভার নির্বাচন। নির্বাচনের কয়েক মাস আগে এ ধরনের দুর্বলতা প্রভাব দলের উপর পড়তে পারে বলে মনে করছে কৈলাশহর বাসী।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য