Friday, October 7, 2022
বাড়িপ্রযুক্তিমেটাভার্সে বিশাল বিপ্লবের জন্য ‘তৈরি হচ্ছে’ সনি

মেটাভার্সে বিশাল বিপ্লবের জন্য ‘তৈরি হচ্ছে’ সনি

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৯ মে।  মেটাভার্স অথবা ভার্চুয়াল জগতে নেতৃস্থানীয় ভূমিকা রাখতে নিজেদের ভালোভাবেই ‘প্রস্তুত’ করছে জাপানের সনি গ্রুপ কর্পোরেশন। ধারণা করা হচ্ছে, প্রতিষ্ঠানটির এই পদক্ষেপ ভার্চুয়াল জগতকে ব্যপকভাবে ‘নাড়িয়ে দেবে’ এবং নতুন নেতৃত্ব আনবে।

অনলাইনের ‘সিমুলেটেড’ পরিবেশে গ্রাহকের সময় কাটানোর ধারণাকে সংক্ষেপে মেটাভার্স বলে। নতুন এই ধারণা ক্রমশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং বিভিন্ন কার্যক্রম ও শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানের চুক্তিতে এটি সাম্প্রতিক সময়ে বহুলব্যাহৃত শব্দ।মেটাভার্সের দিকে যেতে সনির প্রস্তুত হওয়ার কথা উঠে এসেছে বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে।“মেটাভার্স একই সঙ্গে একটি ‘সামাজিক মাধ্যম’ এবং ‘লাইভ নেটওয়ার্ক স্পেস’, যেখানে গেইম, গান, সিনেমা ও অ্যানিমে থাকছে” –বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছেন সনি’র সিইও কেনিচিরো ইয়োশিদা।এপিক গেইমস-এর ‘ফোর্টনাইট’ ফ্রি-টু-প্লে ব্যাটল রয়্যালকে একটি ‘অনলাইন সামাজিক মাধ্যম’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন তিনি।

রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, গত অর্থবছরে গেইম, গান ও সিনেমা থেকে দুই-তৃতীয়াংশ আয় করেছে সনি।

ইয়োশিদা ও তার পূর্বসূরী ক্যাজ হিরাই-এর প্রচেষ্টায় ইলেকট্রনিক পণ্য নির্মাতা থেকে একটি শীর্ষস্থানীয় মেটাভার্স বিনোদন মাধ্যমে বদলে গেছে প্রতিষ্ঠানটি।

‘প্লেস্টেশন ৫’ কনসোলের জন্য গেইমিং জগতে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান রয়েছে সনির। তবে, ভার্চুয়াল জগতে ‘ক্রস-প্লাটফর্ম’ ও ‘ক্লাউড-ভিত্তিক’ গেইমের উত্থান এবং অন্যান্য প্লাটফর্মে প্রতিষ্ঠানটির প্রভাব কমে যাওয়াকে ‘ঝুঁকি’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন পর্যাবেক্ষকরা।২০১৮ সালে ফোর্টনাইট গেইমে ‘ক্রস-প্লে’ সুবিধা এনে নিজেদের কৌশলে সামঞ্জস্য আনতে চেয়েছিল সনি। এ সপ্তাহে এপিক জানিয়েছে, প্লেস্টেশনের ‘ইন-গেইম’ ভার্চুয়াল মুদ্রা ‘ভি-বাকস’ অন্যান্য প্ল্যাটফর্মেও ব্যবহার করা যাবে।“সামাজিক গেইমিংয়ের বিপ্লবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে প্লেস্টেশন, যা মেটাভার্সকে একটি নতুন বিনোদন মাধ্যম হিসেবে আনতে সাহায্য করেছে” –টুইটারে বলেছেন ‘এপিক’-এর সিইও টিম সুইনি।

“স্পাইডার-ম্যান: মাইলস মোরালেস”-এর মতো সিঙ্গেল-প্লেয়ার গেইম তৈরির পাশাপাশি নিজেদের আরও বিস্তৃত করার পদক্ষেপ নিচ্ছে সনি। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে অনলাইন মাল্টি-প্লেয়ার শুটার গেইম ‘ডেস্টিনি’ নির্মাতা ‘বানজি’ কেনার ঘোষণা এসেছিল জানুয়ারিতে।

“আমরা আশা করছি, এই পদক্ষেপ ‘লাইভ গেইমিং’ সেবার সক্ষমতা বাড়াবে …এটি মাল্টি-প্ল্যাটফর্মের দিকে আমাদের মূল পদক্ষেপ।” –বলেছেন ইয়োশিদা।অন্যান্য প্ল্যাটফর্মে এরইমধ্যে নিজস্ব কনটেন্ট লাইসেন্স করে রেখেছে সনি। এসব কনটেন্টের মধ্যে রয়েছে ‘সাইনফিল্ড’-এর মতো জনপ্রিয় মার্কিন সিটকম।‘ক্রাঞ্চিরোল’ নামে সনি’র নিজস্ব একটি অ্যানিমে স্ট্রিমিং সেবা রয়েছে। তবে, সেবাটি এগিয়ে নিতে প্রতিষ্ঠানটি এখনও প্রতিদ্বন্দ্বী ওয়াল্ট ডিজনি’র ভিডিও প্লাটফর্ম  ‘ডিজনি প্লাস’-এর মতো আগ্রাসী পদক্ষেপ নেয়নি বলে প্রতিবেদনে লিখেছে রয়টার্স।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য