Saturday, June 15, 2024
বাড়িখেলাবিশ্বকাপে পাপুয়া নিউ গিনির ‘বিশেষজ্ঞ কোচ’ সিমন্স

বিশ্বকাপে পাপুয়া নিউ গিনির ‘বিশেষজ্ঞ কোচ’ সিমন্স

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২০ মে: সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ক্রিকেট পাপুয়া নিউ গিনি জানিয়েছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে স্থানীয় কন্ডিশন সম্পর্কে সিমন্সের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।চিরাচরিত কোনো কোচের দায়িত্ব না দিয়ে সিমন্সকে ‘বিশেষজ্ঞ কোচ’ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে পিএনজি। স্থানীয় কন্ডিশন মাথায় রেখে বিশ্বকাপে পরিকল্পনা সাজাতে দলের প্রধান কোচ টাটেন্ডা টাইবুকে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করবেন সিমন্স।২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী দলের প্রধান কোচ ছিলেন সিমন্স। শিরোপা পুনরুদ্ধারের অভিযানে দ্বিতীয় মেয়াদে ক্যারিবিয়ানদের দায়িত্ব নেন তিনি। তবে ২০২২ সালের আসরে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায়ের পর তিনি পদত্যাগ করেন।

এরপর থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পৃক্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক এই অলরাউন্ডার। ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স, লস অ্যাঞ্জেলস নাইট রাইডার্স ও করাচি কিংসের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়াও জিম্বাবুয়ে, আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করেছেন সিমন্স। এবার নতুন দেশের হয়ে নিজের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর কথা বলেছেন সাবেক ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার।“এখানে আমার দায়িত্ব মূলত পরামর্শক কোচের। শুধু বিশ্বকাপ খেলাই নয়, ক্যারিবিয়ানে খেলার অভিজ্ঞতা কীভাবে আমি পাপুয়া নিউ গিনির হয়ে কাজে লাগাতে পারি সেই চেষ্টাই করব। বিশেষ করে যেসব ভেন্যুতে খেলাগুলো হবে।”

“পাপুয়া নিউ গিনির ক্রিকেটারদের প্রাণশক্তি অসাধারণ। ছেলেদের দেখে মনে হচ্ছে, তারা ভালোভাবে গুছিয়ে নিয়েছে। টাইবুর সঙ্গে আমার দীর্ঘ দিনের পরিচয়। ছেলেরাও তার কাছ থেকে শিখতে উদগ্রীব। সব মিলিয়ে দলের পরিবেশ দুর্দান্ত।”গায়ানায় আগামী ২ জুন স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে পাপুয়া নিউ গিনির বিশ্বকাপ যাত্রা। ‘সি’ গ্রুপে তাদের পরের তিন প্রতিপক্ষ উগান্ডা, আফগানিস্তান ও নিউ জিল্যান্ড। সবগুলো ম্যাচই হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য