Tuesday, February 27, 2024
বাড়িখেলাম্যাক্সওয়েলের জায়গায় অস্ট্রেলিয়া দলে ‘নতুন ম্যাক্সওয়েল’

ম্যাক্সওয়েলের জায়গায় অস্ট্রেলিয়া দলে ‘নতুন ম্যাক্সওয়েল’

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২২ জানুয়ারি: ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে সিরিজে পূর্ব ঘোষিত দল থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে ম্যাক্সওয়েলকে। সেখানেই ঠাঁই পেলেন ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক।আগে ঘোষিত দলে পরিবর্তন আছে আরও একটি। চোট-জর্জর ক্যারিয়ারে আরেক দফা চোটের হানায় ছিটকে গেছেন জাই রিচার্ডসন। এই পেসারের জায়গায় প্রথমবার সুযোগ পেয়েছেন এবারের বিগ ব্যাশের বিস্ময় জেভিয়ার বার্লেট।এবারের বিগ ব্যাশে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট বার্লেটের। ৯ ম্যাচে ১৭ উইকেট শিকার করেছেন ২৫ বছর বয়সী এই পেসার। বিগ ব্যাশে নতুন বলে দারুণ সব আউট সুইঙ্গার দিয়ে পাওয়ার প্লেতে শিকার ধরেছেন নিয়মিত। শেষের ওভারগুলোতেও নিজের কার্যকারিতা তিনি দেখিয়েছেন।গত সপ্তাহেই ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফোকে বার্লেট বলেছিলেন, অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলার স্বপ্ন তার থাকলেও এখনই দলে ডাক পাওয়ার আশা করছেন না। কিন্তু তার সুযোগটা এসে গেল দ্রুতই।ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই সিরিজ দিয়েই দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কথা ছিল রিচার্ডসনের। কিন্তু সাইড স্ট্রেইনে বিগ ব্যাশ থেকে বাইরে চলে যাওয়ার পর এবার জাতীয় দলে তার ফেরাও থমকে গেল।

ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক এই মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত নামগুলির একটি। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকেই অবশ্য তিনি নজর কেড়েছেন। স্রেফ ১৭ বছর বয়সেই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অভিষেক তার ভিক্টোরিয়ার হয়ে। দুটিতেই করেছেন ফিফটি। আগ্রাসী ব্যাটিং দিয়ে আলাদা করে নিজেকে চিনিয়েছেন তখন থেকেই। পরে খেলেছেন ২০২০ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে।যুব বিশ্বকাপ অবশ্য তার ভালো কাটেনি। পরে তো জঙ্গলে ঘুরতে গিয়ে বানরের আঁচড় খেয়ে বিশ্বকাপ শেষ না করেই দেশে ফিরতে হয়েছিল তাকে।এরপর ঘরোয়া ক্রিকেটে অসাধারণ ফিল্ডিং দিয়ে নজর কাড়লেও ব্যাট হাতে ধারাবাহিক হতে পারছিলেন না একদমই। ভিক্টোরিয়া থেকে এই মৌসুমে সাউথ অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমানোর পর নিজেকে নতুনভাবে মেলে ধরেন তিনি। গত অক্টোবরে ক্রিকেট বিশ্বে সাড়া ফেলে দেন মার্শ কাপে ২৯ বলে সেঞ্চুরি করে। এবি ডি ভিলিয়ার্সের ৩১ বলের রেকর্ড পেছনে ফেলে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটের ইতিহাসের দ্রুততম সেঞ্চুরি সেটি। ১০ চার ও ১৩ ছক্কায় সেদিন তিনি করেন ৩৮ বলে ১২৫।

কদিন পর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদও পেয়ে যান বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান করে। এরপর বিগ ব্যাশেও তার ব্যাট ছিল উত্তাল। এই আসরে ২৫৭ রান করেন তিনি ১৫৮.৬৪ স্ট্রাইক রেটে।শেষ নয় সেখানেই। দেশের বাইরের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে অভিষেকেই এই শনিবার সংযুক্ত আবর আমিরাতের আইএল টি-টোয়েন্টিতে ২৩ বলে ৫৫ রানের ইনিংস খেলেন ৭ ছক্কায়। এরপরই এলো জাতীয় দলের ডাক।ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই সিরিজ থেকে ভবিষ্যতের দিকে হাঁটতে শুরু করবে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দল। ডেভিড ওয়ার্নারের অবসরে ওপেন করবেন ম্যাথু শর্ট। প্যাট কামিন্সের বিশ্রামে অধিনায়কত্ব করবেন স্টিভেন স্মিথ। এছাড়া বিশ্রাম পেয়েছেন অন্য দুই পেসার মিচেল স্টার্ক ও জশ হেইজেলউডও। এবার বিশ্রাম দেওয়া হলো ম্যাক্সওয়েলকে।অস্ট্রেলিয়ার এই মুহূর্তের সবচেয়ে গতিময় বোলার বলে বিবেচিত ল্যান্স মরিসের এই সিরিজে অভিষেক একরকম নিশ্চিত। এছাড়া ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক, বার্লেটের সুযোগও আসতে পারে।তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ম্যাচ তিনটি হবে ২, ৪ ও ৬ ফেব্রুয়ারি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য