Wednesday, June 19, 2024
বাড়িখেলাকোহলির সেঞ্চুরি, অশ্বিন-জাদেজার ফিফটির পর উইন্ডিজের মন্থর পথচলা

কোহলির সেঞ্চুরি, অশ্বিন-জাদেজার ফিফটির পর উইন্ডিজের মন্থর পথচলা

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২২ জুলাই: ব্যাট হাতে অবদান রাখলেন রবীন্দ্র জাদেজা ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনও। তাতে ভারত গড়তে পরল বড় স্কোর। সেই রানের জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বেছে নিল ভীষণ সাবধানী ব্যাটিংয়ের পথ। রান করা নয়, উইকেটে পড়ে থাকাই যেখানে মুখ্য।পোর্ট অব স্পেন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ভারতের রান ৪৩৮। শুক্রবার দ্বিতীয় দিন শেষে ৪১ ওভার খেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান ১ উইকেটে ৮৬ রান।কুইন’স পার্ক ওভালের উইকেট প্রথম দিনের চেয়ে আরও মন্থর হয়ে ওঠে এ দিন। আউটফিল্ডও ছিল ভারী। তবে দারুণ কিছু ড্রাইভে ঠিকই বাউন্ডারি আদায় করে নেন কোহলি।আগের দিনই শতরানের দুয়ারে পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। তিন অঙ্কের কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায় পৌঁছে যান ১৮০ বল খেলে।তার ২৯তম টেস্ট সেঞ্চুরি এটি, বিদেশের মাঠে ১৫তম আর ওয়েস্ট ইন্ডিজে তৃতীয়। দেশের বাইরে তার সবশেষ সেঞ্চুরিটি ছিল ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার পার্থে।আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার সেঞ্চুরি হলো এখন ৭৬টি।একটু পর জাদেজা ফিফটি পূরণ করেন ১০৫ বলে। তার ১৯তম টেস্ট ফিফটি এটি।

১৫৯ রানের এই জুটি থামে কোহলির বিদায়েই। আলজারি জোসেফের সরাসরি থ্রো রান আউট করে দেয় তাকে। টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয়বার রান আউট হয়ে ফেরেন ১২১ রান করে।এরপর আর বড় কোনো জুটি পায়নি ভারত। জাদেজাকে ৬১ রানে থামান রোচ। ডিআরএস নিয়ে তাকে ফেরার ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে সেটি নিয়ে পরে দেখা দেয় বিতর্ক। ডিআরএসের সময় আউট হওয়া শট না দেখিয়ে রিপ্লে দেখানো হয় অন্য শটের। তবে শেষ পর্যন্ত সঠিক সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।ইশান কিষান একটু দ্রুততায় রান তোলার চেষ্টা করলেও ২৫ রান করে ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে।লোয়ার অর্ডারদের নিয়ে ভারতকে সাড়ে চারশর কাছে নিয়ে যান অশ্বিন। শেষ জুটিতে টানা দুই বলে বাউন্ডারিতে তিনি ফিফটিতে পা রাখেন ৭৫ বলে। তার চতুদর্শ টেস্ট ফিফটি। ওই ওভারে আরেকটি বাউন্ডারি মেরে আউট হয়ে যান তিনি ৫৬ রানে। দলের ইনিংসও শেষ হয় তার বিদায়ে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ও তেজনারাইন চন্দরপল ব্যাটিংয়ে নামেন যেন উইকেট না হারানোর পণ নিয়ে। ওভারে পর ওভার পেরিয়ে যায়। রান তোলার তাড়া দেখাননি তারা। বলের পর বল ছেড়ে দেন দুজন। মন্থর উইকেটে পেসার ও স্পিনার, কারও জন্যই খুব সহায়তা ছিল না। ভারতীয় বোলাররা পারেননি হুমকি হয়ে উঠতে।৭১ রানের উদ্বোধনী জুটি থামে ৩৫তম ওভারে। জাদেজার বলে অশ্বিনের হাতে ধরা পড়েন চন্দরপল। ৩৩ রান করতে ৯৫ বল খেলন এই বাঁহাতি।এরপর দিনের বাকি সময়টায় আর উইকেট পড়েনি। অধিনায়ক ব্র্যাথওয়েট ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন ১২৮ বল খেলে।অভিষিক্ত কার্ক ম্যাকেঞ্জি অবশ্য কিছুটা শট খেলার প্রবণতা দেখান। কিছুদিন আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ দলের হয়ে বাংলাদেশ সফরে এসে আগ্রাসী ব্যাটিং করা এই ব্যাটসম্যান ক্রিজে যাওয়ার পরপর ছক্কা মারেন অশ্বিনকে, পরে চার মারেন জাদেজাকে। দিন শেষে তিনি অপরাজিত ২৫ বলে ১৪ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত ১ম ইনিংস: ১২৮ ওভারে ৪৩৮ (আগের দিন ২৮৮/৪) (কোহলি ১২১, জাদেজা ৬১, কিষান ২৫, অশ্বিন ৫৬, উনাদকাট ৭, সিরাজ ০, মুকেশ ০*; রোচ ২২-২-১০৪-৩, জোসেফ ২২-০-৯৭-০, গ্যাব্রিয়েল ১৮-০-৭৪–১, ওয়ারিক্যান ৩৯-৭-৮৯-৩, হোল্ডার ২১-৩-৫৭-২, আথানেজ ৪-০-১২-০, ব্র্যাথওয়েট ২-১-১-০)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৪১ ওভারে ৮৬/১ (ব্র্যাথওয়েট ৩৭*, চন্দরপল ৩৩, ম্যাকেঞ্জি ১৪*; সিরাজ ৭-২-২৩-০, উনাদকাট ৬-০-১২-০, অশ্বিন ১৪-৩-২৯-০, মুকেশ ৪-১-১০-০, জাদেজা ১০-৬-১২-১)।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য