Tuesday, July 23, 2024
বাড়িজাতীয়ক্রিকেট বিশ্বকাপেও বেটিং চক্রের রমরমা, মধ্যপ্রদেশ থেকে থরে থরে টাকা উদ্ধার পুলিশের

ক্রিকেট বিশ্বকাপেও বেটিং চক্রের রমরমা, মধ্যপ্রদেশ থেকে থরে থরে টাকা উদ্ধার পুলিশের

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,   ১৫ জুন:  থরে থরে সাজানো টাকা। ৫০০, ২০০ এবং একশোর নোট। সঙ্গে উদ্ধার বহু বিদেশি মুদ্রাও। তালিকায় ডলার, দিনার, পাউন্ড-সবই রয়েছে। মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়নের একটি বাড়িতে হানা দিয়ে এই বিপুল পরিমাণ সম্পদ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এই বিপুল অঙ্কের টাকা নাকি বেটিং চক্রের।

টি-২০ বিশ্বকাপ শুরু হতেই উজ্জয়নের ওই বাড়িটিকে কেন্দ্র করে রমরমিয়ে চলছিল বেটিং চক্র। দিন কয়েক আগেই খবর মিলেছিল গোয়েন্দা সূত্রে। তদন্তকারী সংস্থাগুলি জানিয়েছিল শহরে লুকিয়ে লুকিয়ে চলছে গড়াপেটার কারবার। সেই খবর অনুযায়ী বৃহস্পতিবার রাতে হানা দেয় পুলিশ )। তল্লাশিতেই পর্দাফাঁস হয় বেটিং চক্রের। উদ্ধার হয় থরে থরে টাকা। মোট উদ্ধার হওয়া টাকার পরিমাণ ১৪ কোটি ৫৮ লক্ষ। বিদেশি মুদ্রা যোগ করলে অঙ্কটা আরও বেশি।

পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে বেটিং চক্রের সঙ্গে যুক্ত ৯ অভিযুক্ত। এদের কারও বাড়ি রাজস্থান, কারও বাড়ি পাঞ্জাব, কারও বাড়ি মধ্যপ্রদেশে। তবে মূল অভিযুক্ত পীযুষ চোপড়া পলাতক। জানা গিয়েছে, এই পীযুষ চোপড়ার বাড়ি থেকেই বেটিং চক্র চলছিল। পলাতক চোপড়ার সন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ।

বড় কোনও ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হলেই বেটিং কারবারিদের পোয়াবারো শুরু হয়ে যায়। বিশ্বকাপ ক্রিকেটের এই উৎসবকে কেন্দ্র করে রীতিমতো জুয়ার আসর বসে সাট্টা বাজারগুলিতেও। ভারতে বেটিং অবশ্য আইনসম্মত নয়। কিন্তু তাতে কী, আড়ালে আবডালে রমরমিয়ে চলে গড়াপেটার ব্যবসা। এ বছরও ব্যতিক্রম নয়। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উজ্জয়নজুড়ে বড়সড় বেটিং চক্রের জাল বুনেছিল অভিযুক্তরা। অবশেষে পুলিশের তৎপরতায় তা নষ্ট হল।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য