Friday, May 20, 2022
বাড়িবিশ্ব সংবাদমস্কোকে সাহায্য করা ‍নিয়ে চীনকে ফের সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র

মস্কোকে সাহায্য করা ‍নিয়ে চীনকে ফের সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৪ মার্চ। রাশিয়ার বিরুদ্ধে দেওয়া নিষেধাজ্ঞা ফলে সৃষ্ট ব্যবসায়িক সুযোগের সুবিধা নেওয়ার বিষয়ে বেইজিংকে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্রের জো বাইডেন প্রশাসন।তারা চীনকে নিষেধাজ্ঞা জর্জরিত রাশিয়া থেকে দূরে রাখতে চায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।মস্কোকে রপ্তানি বিধিনিষেধ এড়ানো ও আর্থিক লেনদেনে দেওয়া নিষেধাজ্ঞা এড়াতে সাহায্যের ক্ষেত্রে চীনকে তারা সাবধানও করেছে।

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেইক সুলিভান সাংবাদিকদের বলেছেন, ইউক্রেইনে হামলার প্রতিক্রিয়ায় আরোপিত পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা রাশিয়া যেন চীন বা অন্য কোনো দেশের সাহায্য নিয়ে এড়াতে না পারে তা নিশ্চিতে শিল্পোন্নত দেশগুলোর জোট জি-৭ শিগগিরই ঐক্যবদ্ধ পদক্ষেপের ঘোষণা দিতে যাচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন যে বিমানে করে ব্রাসেলসে নেটোর জরুরি সম্মেলনে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন, সেই এয়ার ফোর্স ওয়ানে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে সুলিভান বলেন, “এটা কেবল সুনির্দিষ্টভাবে চীনের ক্ষেত্রেই নয়, গুরুত্বপূরণ সব অর্থনীতির দেশের ক্ষেত্রেই প্রয়োগ হবে; কোনো দেশ যদি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বা অন্যা কোনো উপায়ে নিষেধাজ্ঞাকে খাটো বা দুর্বল করার চেষ্টা করে, তাহলেই এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।”

ইতোমধ্যেই চীনকে এ বার্তা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেন, “ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ইউরোপের দেশগুলো পৃথকভাবে একই কথা বলবে বলে আমাদের আশা।”কয়েকদিন আগে বাইডেনের সঙ্গে ভিডিও কলে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কথা হওয়ার পর বেইজিং রাশিয়ার ওপর দেওয়া নিষেধাজ্ঞার তীব্র নিন্দা জানিয়েছিল।“নির্বিচারে দেওয়া নিষেধাজ্ঞা কেবল জনগণের ভোগান্তিই বাড়াবে,” বলেছিল দেশটি। ইউক্রেইন সংকট নিয়ে উত্তেজনা আর বাড়ানো উচিত হবে না বলেও মন্তব্য করেছিল তারা।

যুক্তরাষ্ট্র তাদের রপ্তানিতে যে বিধিনিষেধ দিয়েছে তার লক্ষ্য হচ্ছে বাণিজ্যিক ইলেকট্রনিক পণ্য, কম্পিউটার ও বিমানের যন্ত্রাংশের মতো গুরুত্বপূরণ পণ্যের রাশিয়ার প্রবেশাধিকার আটকে দেওয়া।ওয়াশিংটনের উদ্বেগ, চীন রাশিয়ার এসব পণ্যের ‘ঘাটতি’ মেটাতে সাহায্য করতে পারে। তবে তা যেন না হয় তা নিশ্চিতের উপায় মার্কিন সরকারের আছে বলে ভাষ্য সুলিভানের।বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী রয়টার্সকে বলেছেন, কোনো কোম্পানি সেমিকন্ডাক্টরের মতো পণ্য রপ্তানিতে দেওয়া নিষেধাজ্ঞা লংঘন করলে যুক্তরাষ্ট্র ওই কোম্পানিকে শাস্তি দেবে।চীন এখন পর্যন্ত ইউক্রেইনে রুশ হামলার নিন্দা জানায়নি, তবে তারা এ যুদ্ধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য