Tuesday, July 23, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদসরছেন না বাইডেন, আবার বিতর্কে ফেরার পরিকল্পনা

সরছেন না বাইডেন, আবার বিতর্কে ফেরার পরিকল্পনা

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২৯ জুন: যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথম মুখোমুখি বিতর্কে ধরাশায়ী হওয়ার পর বাইডেনের আর নির্বাচনী দৌড়ে থাকা উচিত কিনা তা নিয়ে বিভক্ত খোদ ডেমোক্র্যাটরা। তারপরও বাইডেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে না দাঁড়িয়ে বরং ট্রাম্পের সঙ্গে দ্বিতীয়বারের মতো বিতর্কে ফেরার পরিকল্পনা করেছেন।সিএনএন এর জ্যোষ্ঠ হোয়াইট হাউজ সংবাদদাতা কায়লা তাউসে শুক্রবার এক উপদেষ্টার উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, “জো বাইডেন আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কের মঞ্চে ফিরবেন।”গত বৃহস্পতিবার প্রথম মুখোমুখি বিতর্কে অংশ নিয়েছেন দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ডেমোক্র্যাটিক দল থেকে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রিপাবলিকান দল থেকে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। সিএনএন এর আটলান্টা স্টুডিওতে এ বিতর্কে অংশ নেন তারা।

আর এতে বাইডেনের দুর্বল, টলমল বিতর্কে খোদ তার ডেমোক্র্যাটিক দলের সদস্যরাই হতাশ হয়েছেন। নির্বাচনের আগে দিয়ে বাইডেনের এমন বাজে পারফরমেন্সে দল ক্ষতির মুখে পড়া নিয়েও তাদের মধ্যে উদ্বেগ, আতঙ্ক বিরাজ করছে।বাইডেনকে সরিয়ে দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে বিভক্তি দেখা দিয়েছে ডেমোক্র্যাট শিবিরে। কেউ কেউ বাইডেনকে সরিয়ে নির্বাচনে অন্য কাউকে প্রার্থী করার কথা বলছেন। কিছু ডেমোক্র্যাট বাইডেনকে সরে দাঁড়ানোর দাবি জানাতে শুরু করেছেন।আবার অনেকে বলছেন, একটা মাত্র পারফরমেন্স দেখেই তাকে সরানো উচিত হবে না। নির্বাচন কাছে চলে আসায় ট্রাম্পকে মোকাবেলায় দ্রুত একজন যোগ্য প্রার্থী পাওয়া সময়ের ব্যাপার- এদিক থেকেও অনেকে বাইডেনকে রাখাই ভাল মনে করছেন।দ্য নিউ ইয়র্ক পোস্টকে এক ডেমোক্র্যাট বলেন, “বাইডেন বিতর্কে অনেক ভুল কথা বলেছেন। কিন্তু এখন কারও উচিত তাকে সামলে নেওয়া।”

একজন ডেমোক্র্যাট সিনেটর বলেছেন, ট্রাম্প পর্নো তারকাকে দেওয়া ঘুষের মামলায় নিউ ইয়র্কের আদালতে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর বাইডেনের জনসমর্থন কিছুটা বেড়েছে। সর্বশেষ জাতীয় জরিপে তার পক্ষে ৫০ শতাংশ জনমত দেখা গেছে।ওদিকে, শুক্রবার নর্থ ক্যারোলাইনায় নির্বাচনী প্রচারে জো বাইডেন স্বীকার করেছেন যে, ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কে তিনি ভাল করতে পারেননি।তিনি যে বয়সেও তরুণ নন সেটিও স্বীকার করেছেন। তবে পরিষ্কার করে বাইডেন এও জানিয়ে দিয়েছেন যে, নির্বাচনী দৌড় থেকে তার সরে যাওয়ার কোনও অভিপ্রায় নেই।বাইডেন বলেন, “আমি যতটা সহজভাবে কথা বলতে পারি ততটা বলতে পারিনি। আমি সাধারণত যেভাবে বিতর্ক করতে পারি সেভাবে করতে পারিনি। কিন্তু আমি জানি কিভাবে সত্য বলতে হয়।”

“আমি জানি একাজ কিভাবে করতে হয়। আমি জানি কিভাবে একটা কাজ সম্পন্ন করতে হয়। লাখো আমেরিকান যা জানে সেটি আমিও জানি যে: যখন আপনি পড়ে যান, তখন উঠে দাঁড়ান।”প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি কথা দিয়েছেন যে- বাইডেন হিসাবে তিনি নির্বাচনী দৌড়ে থাকতেন না, যদি না তিনি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করতেন যে একাজটি তিনি করতে পারবেন।এসময় সমবেত জনতা সমম্বরে বলে ওঠে, “হ্যাঁ আপনি পারবেন।”জনতার উদ্দেশে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন বাইডেন। ট্রাম্পকে দেশের জন্য প্রকৃতই হুমকি বলে তিনি উল্লেখ করেন।বাইডেন বলেন, “তিনি (ট্রাম্প) এই জাতির জন্য, স্বাধীনতার জন্য হুমকি, আমাদের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। আমেরিকা যা কিছুর জন্য উঠে দাঁড়ায় তার সবকিছুর জন্য তিনি অক্ষরিক অর্থেই হুমকি।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য