Tuesday, July 23, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদচীনে হড়কা বান, ভূমিধসের পর নিখোঁজ ৪

চীনে হড়কা বান, ভূমিধসের পর নিখোঁজ ৪

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১৮ জুন:চীনের জিনজিয়াং উইঘুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের চাংজি হুই স্বায়ত্তশাসিত প্রিফেকচারে হড়কা বান একটি গাড়িকে ভাসিয়ে নিয়ে গেছে, তারপর থেকে এর চার আরোহী নিখোঁজ রয়েছেন।চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম জানিয়েছে, মঙ্গলবার দেশটির বেশ কয়েকটি অংশে ভারি বৃষ্টিপাত ও ভূমিধসের ফলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে আর এর ফলে স্থানীয়দের অধিকাংশকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় জিনজিয়াং অঞ্চলের চাংজির পার্বত্য এলাকার জরুরি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিসিটিভির খবরে বলা হয়েছে, মিয়ারগু শহরে ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্টি আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের ফলে অনেকগুলো রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে।

উদ্ধারকারী বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি গাড়ি খুঁজে পায়, কিন্তু নিখোঁজ চারজনের সন্ধান পায়নি। তল্লাশি ও উদ্ধার কাজ অব্যাহত আছে।বেশ কয়েকদিন ধরে চলা ভারি বৃষ্টিতে ইয়াংসি, গোয়েঝো, গুয়াংদং, ফুজিয়ান ও গুয়াংশি প্রদেশের বহু এলাকা ডুবে গেছে। প্রবল বৃষ্টি ও ভূমিধসে নয়জন নিহত ও ১৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।রয়টার্স জানিয়েছে, আগে প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে বন্যায় চীনে হাজার হাজার মানুষের প্রাণহানির ঘটত, কিন্তু ১৯৯০-এর দশকজুড়ে বাঁধ নির্মাণসহ বন্যা নিয়ন্ত্রণ অবকাঠামোর উন্নতির কারণে মৃত্যুর সংখ্যা দ্রুত হ্রাস পেয়েছে।

সিসিটিভির খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার গুয়াংশির কর্মকর্তারা বন্যা সতর্কতামূলক পরামর্শ আরও বাড়িয়েছেন। তারা জানিয়েছেন, ১০টি কাউন্টির প্রায় ২৩৬০০ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং বৃষ্টির কারণে বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ও ফসল হারানোর কারণে প্রায় ১৪ লাখ ডলারের সমপরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।ঝেজিয়াং ও জিয়াংশি প্রদেশেও আকস্মিক বন্যার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। প্রদেশ দু’টির বহু জায়গায় টানা দু’দিন ধরে ভারি বৃষ্টি হয়েছে।আবহাওয়ার পূর্বাভাসে গুয়াংশি অঞ্চল এবং জিয়াংশি, ফুজিয়ান, ঝেজিয়াং ও আনহুই প্রদেশে আরও ভারি বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা প্রকাশ করে সতর্ক করা হয়েছে যে এটি আরও ভূমিধস ও বন্যার কারণ হতে পারে।রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম ও স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দেশজুড়ে বহু নদনদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করে গেছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য