Sunday, June 23, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদগাজার ‘গণহত্যা’ নিয়ে বক্তব্য, নিউ ইয়র্কে চাকরি খোয়ালেন মুসলিম নার্স

গাজার ‘গণহত্যা’ নিয়ে বক্তব্য, নিউ ইয়র্কে চাকরি খোয়ালেন মুসলিম নার্স

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৩১ মে: গাজা যুদ্ধে ইসরায়েল ‘গণহত্যা’ চালাচ্ছে, এমন মন্তব্য করে চাকরি খুইয়েছেন নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে কর্মরত একজন ফিলিস্তিনি-আমেরিকান মুসলিম নার্স।রয়টার্স জানিয়েছে, গর্ভাবস্থা ও প্রসবের সময় সন্তান হারানো শোকার্ত মায়েদের নিয়ে কাজ করেন হাসেন জাবের নামের এই নারী নার্স।সেই কাজের জন্য স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কার গ্রহণ করতে গিয়ে বক্তব্য দিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই তিনি গাজার ‘গণহত্যা’ নিয়ে কথা বলেন।বৃহস্পতিবার এনওয়াইইউ ল্যাংগোন হেলথ হাসপাতালের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ‘বিভাজনমূলক’ এই বিষয়ে কথা না বলতে লেবার এবং ডেলিভারি নার্স জাবেরকে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল।

নার্স হাসেন জাবের এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে জানিয়েছেন, গত ৭ মে তাকে পুরস্কার দেওয়া হয়। তখন তিনি বক্তব্য দিয়েছিলেন। এরপরই তাকে বরখাস্তের চিঠি ধরিয়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।জাবের তার বক্তব্যের একটি অংশে গাজা যুদ্ধে সন্তান হারানো শোকার্ত মায়েদের প্রসঙ্গ টেনে বলেছিলেন, এই পুরস্কার তার কাছে ‘খুবই ব্যক্তিগত’ গুরুত্ব বহন করে।“গাজায় চলমান গণহত্যার মধ্যে আমার দেশের নারী যে অকল্পনীয় ক্ষতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন, তা আমাকে প্রচণ্ড কষ্ট দেয়,” বলেন তিনি।এক ইমেইল বার্তায় হাসপাতালটির মুখপাত্র জানিয়েছেন, কর্মক্ষেত্রে এই ‘বিভাজনমূলক এবং বিচারাধীন বিষয়ে’ যেন কথা না বলেন, সে জন্য গত ডিসেম্বরে নার্স হাসেন জাবেরকে সতর্ক করা হয়েছেল।

“তার পরিবর্তে তিনি কর্মীদের মূল্যায়নের একটি অনুষ্ঠানকে বেছে নেন, যেখানে তার অনেক সহকর্মী উপস্থিত ছিল এবং তাদের মধ্যে কেউ কেউ তার মন্তব্যে মর্মাহতও হয়েছে।”“এর ফলে, জাবের আর এনওয়াইইউ ল্যাংগোনের কর্মী থাকছেন না।গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে ফিলিস্তিনি মুক্তিকামী সশস্ত্র সংগঠন হামাসের হামলায় ১২শ মানুষের মৃত্যু এবং আড়াইশর বেশি মানুষকে জিম্মি করার পরই গাজায় পাল্টা হামলা শুরু করে ইহুদ রাষ্ট্রটি।তারপর থেকে গত আট মাসে হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজায় ৩৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বাস্তুচ্যুত হযেছে ২৩ রাখের মতো মানুষ। যুদ্ধের কারণে ছোট্ট ওই ভূখণ্ডের মানুষ মারাত্মক অনাহারে দিন কাটাচ্ছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য