Sunday, June 23, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদরাশিয়ায় মার্কিন অস্ত্র হামলা চালাতে দেওয়ার চাপে বাইডেন

রাশিয়ায় মার্কিন অস্ত্র হামলা চালাতে দেওয়ার চাপে বাইডেন

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৩১ মে: রাশিয়ার ভূখন্ডে ইউক্রেইনকে পশ্চিমা দেশগুলোর সরবরাহ করা অস্ত্র হামলা চালাতে দেওয়ার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ওপর চাপ বাড়ছে।রাশিয়ার ভূখণ্ডে সরাসরি পশ্চিমা অস্ত্রের হানায় উত্তেজনা বেড়ে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় কয়েকমাসের উদ্বেগের পর যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি মিত্রদেশ এ সপ্তাহে ইউক্রেইনকে এই অস্ত্র ব্যবহার করতে দেওয়ার পক্ষে সায় দিয়েছে।ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রোঁ বলেছেন, পশ্চিমাদের সরবরাহ করা অস্ত্র রাশিয়ার ভূখন্ডে সামরিক বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালানোর জন্য ইউক্রেইনেকে ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত।

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস এভাবে অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ে প্রকাশ্যে সতর্কবার্তা দিলেও বার্লিনে তার এক মুখপাত্র বলেছেন, “প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা কেবল একটি দেশের নিজস্ব ভূখণ্ডের জন্য নয়, বরং আগ্রাসনকারীর ভূখণ্ডও এর আওতায় পড়বে।”গত সপ্তাহে পশ্চিমা সামরিক জোট নেটোর প্রধান ইয়েন্স স্টলটেনবার্গও দ্য ইকোনোমিস্ট পত্রিকায় বলেছিলেন, রাশিয়ার ভেতরের সামরিক ঘাঁটিতে হামলা করতে দিয়ে ইউক্রেইনকে নিজেদের প্রতিরক্ষার সুযোগ দেওয়া উচিত পশ্চিমাদের।“ইউক্রেইনের নিজেদেরকে সুরক্ষিত রাখার অধিকার আছে। আর তা করতে গেলে রাশিয়ার ভূখন্ডের ভেতরের নিশানায় তাদের হামলা করার বিষয়টিও আসবে,” বলেন তিনি।এরও আগে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন ইউক্রেইন সফরে গিয়ে একই সুরে কথা বলেছিলেন। তার বক্তব্য ছিল, যুক্তরাজ্যের দেওয়া অস্ত্র ইউক্রেইন কীভাবে ব্যবহার করবে সে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা তাদের নিজেদের বিষয়।আবার এই সপ্তাহে পোল্যান্ডের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, ইউক্রেইন হামলা চালানোর জন্য পোলিশ অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার দেশের মাটিতে সরাসরি পশ্চিমা অস্ত্রের হানার ক্ষেত্রে ‘মারাত্মক পরিণতি’ ভোগ করতে হবে বলে সতর্ক করেছেন। বিশেষ করে ইউরোপের ছোট দেশগুলোকে এমন পরিণতি ভোগের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।পুতিন বলেছেন, ইউরোপে বিশেষ করে ছোট দেশগুলো কী নিয়ে খেলছে সে বিষয়ে তাদের সতর্ক থাকা উচিত। ইউরোপের বেশিরভাগ দেশের ভূখন্ডই ছোট এবং ঘনবসতিপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন তিনি।যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন অবশ্য বুধবার বলেছেন, এই বিষয়ে ওয়াশিংটনের অবস্থান হচ্ছে, যুদ্ধক্ষেত্রের পরিবর্তনশীল পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে এবং খাপ খাইয়ে চলা। নেটো পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করতে ব্লিনকেন সম্প্রতি চেক প্রজাতন্ত্রের রাজধানী প্রাগে আছেন।ওদিকে, হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মুখপাত্র জন কারবি বুধবার বলেছেন, ইউক্রেইনকে যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া সমর্থন ধীরে ধীরে বাড়লেও, “এ মুহূর্তে আমাদের নীতির কোনও পরিবর্তন হয়নি।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য