Monday, May 16, 2022
বাড়িবিশ্ব সংবাদইন্টারনেটে বিশ্বের সঙ্গে ফের যুক্ত হল টোঙ্গা

ইন্টারনেটে বিশ্বের সঙ্গে ফের যুক্ত হল টোঙ্গা



স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৩ ফেব্রুয়ারি। প্রশান্ত মহাসাগরের জলমগ্ন একটি আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত ও পরবর্তী সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্ত সাবমেরিন কেবল মেরামত করার পর দ্বীপ দেশ টোঙ্গার সঙ্গে বাকি বিশ্বের ইন্টারনেট সংযোগ পুনঃস্থাপিত হয়েছে।

১৫ জানুয়ারির ওই প্রাকৃতিক দুর্যোগে ছোট এই দেশটি ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়ে, শত শত ঘরবাড়ি ধ্বংস হয় এবং তিন জন নিহত হয়। ওই সময় সাবমেরিন কেবল ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে প্রশান্ত মহাসাগরের প্রত্যন্ত এই দ্বীপপুঞ্জটির সঙ্গে সারা বিশ্বের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।  ওই ঘটনার পাঁচ সপ্তাহ পর মঙ্গলবার টোঙ্গা বিশ্বের সঙ্গে ফের যুক্ত হয়েছে বলে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এদিন স্থানীয় সময় বিকালে মেরামতকারী একটি জাহাজ পুনঃস্থাপিত কেবল হস্তান্তর করার পরপরই প্রধান দ্বীপের বাসিন্দাদের ইন্টারনেট সচল হয়ে ওঠে বলে টোঙ্গা কেবলের প্রধান নির্বাহী জেমস পানুভে টেলিফোনে রয়টার্সকে জানিয়েছেন ।

যারা প্রথম ইন্টারনেট সংযোগ ফিরে পান তাদের একজন স্কুলের যাজক পেনিসিমানি আকুলা ফেইসবুকে লেখেন, “১৫ জানুয়ারির পর থেকে ফেইসবুকে প্রথম পোস্ট! এই সুযোগ পেয়ে ধন্য! মালো টোঙ্গা কেবল এবং টোঙ্গা সরকার!”  

কেবল মেরামত চলাকালীন টোঙ্গার বাসিন্দারা অস্থায়ী স্যাটেলাইট পরিষেবা দিয়ে কোনরকমে বাকি বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগের কাজটি চালিয়ে গেছে।৮২৭ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি সাবমেরিন ফাইবার অপটিক কেবল টোঙ্গাকে নিকটবর্তী ফিজি ও বাকি আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্কগুলোর সঙ্গে যুক্ত করেছে। এই কেবলটির ৯২ কিলোমিটার অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। এই অংশটি সারাতে মেরামতকারী জাহাজ রিলায়েন্সের ২০ দিন সময় লেগেছে।টোঙ্গা কেবলের কর্মকর্তা পানুভে সহযোগিতার জন্য প্রতিবেশী দ্বীপগুলোর টেলিযোগাযোগ কোম্পানিগুলোকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।   পানুভে জানান, এরপরের কাজ হচ্ছে প্রধান দ্বীপ টোঙ্গাটাপুর সঙ্গে অন্যান্য দ্বীপের সংযোগ মেরামত করে দেশের অভ্যন্তরীণ কেবল সংযোগ পুনঃস্থাপন করা।বাইরের দিকের ওই দ্বীপগুলো বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এই কাজে ছয় থেকে নয় মাসের মতো লেগে লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য