Sunday, April 21, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে আগুনে আত্মা হুতির চেষ্টা মার্কিন সেনার

ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে আগুনে আত্মা হুতির চেষ্টা মার্কিন সেনার

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,২৬ ফেব্রুয়ারি: যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজ শরীরে আগুন লাগিয়ে আত্মাহুতির চেষ্টা করেছেন এক মার্কিন বিমান সেনা।রোববার ওয়াশিংটন ডিসির স্থানীয় সময় বিকালে ঘটনাটি ঘটেছে। গাজায় ইসরায়েলের নির্বিচার হামলার প্রতিবাদে তিনি এমনটি করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওয়াশিংটন ডিসি দমকল ও ইএমএস জানিয়েছে, মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের কর্মকর্তারা আগুন নিভিয়ে ফেলার পর ওই ব্যক্তিকে নিকটবর্তী একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

মেট্রোপলিটন পুলিশ বিভাগের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তার অবস্থা সংকটজনক।মার্কিন বিমান বাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ঘটনাটি যিনি ঘটিয়েছেন তিনি বিমান বাহিনীর একজন সদস্য। নিউ ইয়র্ক টাইমসের তথ্য অনুযায়ী, আত্মহুতির চেষ্টা করা সামরিক বাহিনীর পোশাক পরা এই সেনা ইন্টারনেটে সরাসরি সম্প্রচার করা একটি ভিডিওতে বলেছেন, “আমি আর গণহত্যার সঙ্গে জড়িত থাকব না।”এরপর তিনি নিজ শরীরে স্বচ্ছ একটি তরল পদার্থ ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন, তারপর চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘ফিলিস্তিন মুক্ত হোক’। 

 স্থানীয় পুলিশ ও মার্কিন সিক্রেট সার্ভিস ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ওয়াশিংটনের ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিয়মিতই গাজা যুদ্ধের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গাজায় চলা যুদ্ধ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অংশে ফিলিস্তিনপন্থি ও ইসরায়েলপন্থি বিভিন্ন প্রতিবাদ হচ্ছে।এর আগে ডিসেম্বরে দেশটির আটলান্টা শহরে ইসরায়েলি কন্স্যুলেটের সামনে আরেক ফিলিস্তিনপন্থি প্রতিবাদকারী নিজ শরীরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল। গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে নজিরবিহীন আক্রমণ চালিয়ে ১২০০ ইসরায়েলিকে হত্যা করে গাজা শাসনকারী ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। হামাসের ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা ইসরায়েল থেকে ২৫৩ জনকে বন্দি করে গাজায় নিয়ে জিম্মি করে রাখে।এর প্রতিশোধ নিতে ওই দিন থেকেই ফিলিস্তিনি ছিটমহল গাজায় নির্মম আক্রমণ শুরু করে ইসরায়েল। এরপর থেকে সাড়ে চার মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা অবিরাম হামলায় গাজায় ৩০ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য