Wednesday, February 8, 2023
বাড়িবিশ্ব সংবাদইউক্রেইনের পূর্বাঞ্চলে তীব্র লড়াই

ইউক্রেইনের পূর্বাঞ্চলে তীব্র লড়াই

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, আগরতলা,১ ডিসেম্বর: ইউক্রেইনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়ার বাহিনীগুলো অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করছে এবং দক্ষিণাঞ্চলে খেরসন শহর লক্ষ্য করে ট্যাঙ্ক, মর্টার ও কামান থেকে গোলা ছুড়ছে বলে জানিয়েছে কিইভের সামরিক বাহিনী।বুধবার রাতে এক বিবৃতিতে ইউক্রেইনের সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ জানিয়েছে, পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কে রাশিয়ার বাহিনীগুলো আরও অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করছে এবং বাখমুত ও নিকটবর্তী সোলেদার, ওপুয়েৎনেতসহ বেশ কয়েকটি শহর লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে।দক্ষিণাঞ্চলে রাশিয়ার বাহিনীগুলো প্রতিরক্ষামূলক অবস্থান গ্রহণ করেছে এবং ইউক্রেইনীয় বাহিনীর অবস্থান ও আঞ্চলিক রাজধানী খেরসন লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে বলে জানিয়েছে তারা।নভেম্বরের প্রথমদিকে রুশ বাহিনী খেরসন ছেড়ে যাওয়ার পর ইউক্রেইনীয় বাহিনীগুলো নগরীটির নিয়ন্ত্রণ নেয়। ইউক্রেইনের উত্তরপূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলেও হামলা চালানো হচ্ছে বলে ইউক্রেইনের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে।বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, যুদ্ধক্ষেত্রের এসব প্রতিবেদন তারা যাচাই করতে পারেনি।বুধবার রাতে দেওয়া ভিডিও ভাষণে প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, “আমরা দখলদারদের উদ্দেশ্যে বিশ্লেষণ করে পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি,

 এখনকার তুলনায় আরও কঠোর পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্সিয়াল প্রশাসনের উপপ্রধান কিরিলো তিমোশেঙ্কো জানিয়েছেন, খেরসনের ৬৫ শতাংশ ভোক্তার বিদ্যুৎ সংযোগ পুনর্বহাল করা হয়েছে।বুধবার রাতে জেলেনস্কি জানিয়েছেন, রাজধানী কিইভসহ ইউক্রেইনের অধিকাংশ অঞ্চলের প্রায় ৬০ লাখ ভোক্তা বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে।ইউক্রেইনের বিমান বাহিনীর মুখপাত্র ইউরি এহেনাত বলেছেন, যুদ্ধে রাশিয়া এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০টি ইরানি ড্রোন পাঠিয়েছে আর সেগুলোর মধ্যে ৩৪০টিকে গুলি করে নামানো হয়েছে।ইউক্রেইনের প্রধান টেলিভিশন নেটওয়ার্কে তিনি বলেন, “আমরা প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ইরানের মানুষবিহীন ওই আকাশযানগুলো দেখছি না, সম্ভবত এগুলোর প্রথম চালান ইতোমধ্যেই শেষ হয়ে গেছে।”নয় মাস আগে ইউক্রেইনে আক্রমণ শুরু করে রাশিয়া। বিপজ্জনক বিবেচনা করা ইউক্রেইনের জাতীয়তাবাদীদের দমন করার জন্য তারা সেখানে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ পরিচালনা করছে বলে মস্কো দাবি করে আসছে।অপরদিকে রাশিয়া প্রতিবেশী দেশটির ভূখণ্ড গ্রাস করার জন্য বিনা উস্কানিতে সাম্রাজ্যবাদী হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে ইউক্রেইন ও এর পশ্চিমা মিত্ররা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য