Wednesday, June 29, 2022
বাড়িরাজ্যমঞ্চে দাঁড়িয়ে কাঁদলেন প্রদ্যোত, জবাব দিতে প্রস্তুত থাকতে বললেন দলীয় কর্মীদের

মঞ্চে দাঁড়িয়ে কাঁদলেন প্রদ্যোত, জবাব দিতে প্রস্তুত থাকতে বললেন দলীয় কর্মীদের

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৯ জুন : ৭ জুন তৈদ্যুতে লংকার কান্ডের ঘটনায় পুলিশ লাঠিপেটা করায় কেঁদে ফেললেন তিপ্রা মথার সুপ্রিমোর প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মন। সেদিনের ঘটনার সম্পর্কে অবগত হতে একদিন বাদে বৃহস্পতিবার তৈদ্যুতে যান তিপ্রা মথার সুপ্রিমো প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মন। কথা বললেন দলীয় কর্মীদের সাথে।

সাংসদ রেবতী কুমার ত্রিপুরা পুলিশ দিয়ে মহিলাদের লাঠিপেটা করেছেন বলে অভিযোগ তোলে ঘটনার নিন্দা জানান তিনি। এটি লজ্জাজনক ঘটনা। তিপ্রাসা বেকুব নয়। পুলিশ দিয়ে লাঠিপেটা করে তিপ্রাসাদের অপমানিত করেছেন সাংসদ রেবতী কুমার ত্রিপুরা। তিপ্রা মথা কোন জাতির বিরুদ্ধে নয়। গ্রেটার তিপরাল্যান্ডের জন্য মূলত লড়াই করছে। ভারতীয় জনতা পার্টি হতে পারে একটি সর্ববৃহৎ দল। কিন্তু মহাভারতের রয়েছে অহংকারের বিনাশ হয়। তিপ্রা মথার পৃথক রাজ্যের দাবি সাংবিধানিক। তারা চাইছে একটি দাঙ্গা সৃষ্টি করে তিপ্রাসা ভাঙতে। যেদিন মন্ত্রী মেবার কুমার জমাতিয়া থানসার কথা বলেছেন, তারপরেই মন্ত্রিত্ব পদ থেকে অপসারিত করা হয়েছে মেবার কুমার জমাতিয়াকে।

 আর যে দিন উপমুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা এবং সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী থানসার কথা বলবেন সেদিন তাদের পদ থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু তারা মথার বিরুদ্ধে নয়। তারা থানসার বিরুদ্ধে। তাই তিপ্রাসাকে নিয়ে এসে তিপ্রাসাকে আক্রমণ করেন। তাই জবাব দিতে লড়াই করতে জানতে হবে। এর জন্য হল সভায় চ্যালেঞ্জ করালেন প্রদ্যুৎ কর্মীদের। প্রশাসন নিয়ে আসলেও তিপ্রাসাদের সাংবিধানিক অধিকারের জন্য লড়াই করতে হবে বলে জানান প্রদ্যোত। এবং সেদিন যারা তিপ্রাসাকে মেরেছে, তাদের জবাব দেবেন। যতক্ষণ পর্যন্ত শ্বাস রয়েছে ততক্ষণ পর্যন্ত তিপ্রাসাদের জন্য লড়াই করবেন বলে জানান প্রদ্যোত। পাশাপাশি আরও বলেন রাজ্যে যখন কোন তিপ্রাসা খুন হয় তখন কেউ গ্রেফতার পর্যন্ত হয় না। আর এই অত্যাচারের জন্য গ্রেটার তিপরাল্যান্ড দাবি করেন বলে জানান তিনি।

পুলিশ, প্রশাসন বিজেপি’র কাছে থাকতে পারে, কিন্তু তিপ্রাসা বুবাগ্রার কাছে রয়েছে বলে জানান তিনি। আরও বলেন এই লড়াই বাঙালি এবং তিপ্রাসার মধ্যে নয়। লড়াই তিপ্রাসার অন্দরের। যারা থানসা ভাঙতে চাইছে, তাদের থেকে এই লড়াই বললেন প্রদ্যোত। কিন্তু এটা যারা সম্প্রদায়িক বলেছিল তারা এখন বিজেপি -তে বসে আছে। প্রদ্যোত এই রাজনীতি করে না বলে জানান তিনি। আগামী দু’মাসের মধ্যে রাজ্যে ভিলেজ কমিটির নির্বাচন সংঘটিত হবে। আর জয়ের জন্য প্রস্তুতি হতে বলেন প্রদ্যোত।

উল্লেখ্য, বিজেপির যোগদান কর্মসূচিকে ঘিরে গত ৭ জুন রনক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছিল তৈদ্যু বাজার। সাংসদ রেবতী ত্রিপুরার গাড়ি ঘিরে কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ দেখায় তিপ্রা মথা বলে অভিযোগ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশের কাঁদান গ্যাস এবং মৃদু লাঠিচার্জ করতে হয়েছে। বিজেপি অমরপুর মন্ডলের উদ্যোগে তৈদ্যু কমিউনিটি হলে যোগদান সভা ছিল সেদিন। পরবর্তী সময়ে তিপ্রা মথার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ছিলেন সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা। আর এর পরিপ্রেক্ষিতে পাল্টা জবাব দিলেন মথার নেতা প্রদ্যোত। পরে সেদিন আহত হওয়া কর্মী-সমর্থকদের সাথে কথা বলেন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সদ্য আই.পি.এফ.টি থেকে তিপ্রা মথায় যোগদান করা মেবার কুমার জমাতিয়ার সহধর্মিনী গীতা দেববর্মা সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। আগামী দিনে বিজেপি ‘র গলার কাঁটা হতে চলেছে মথা, তা স্পষ্ট প্রদ্যোতের বক্তব্যে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য