Tuesday, June 28, 2022
বাড়িরাজ্যআক্রমণের শিকার পাতাল

আক্রমণের শিকার পাতাল

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৯ জুন : ফের যোগদান সভায় অংশ নিতে যাওয়ার পথে রাস্তায় দুষ্কৃতীদের আক্রমণের মুখে পড়ে বিজেপি-র সহ- সভানেত্রী পাতাল কন্যা জমাতিয়া। ঘটনা বৃহস্পতিবার চম্পকনগর- জম্পুইজলা সড়কের জম্পুইজলা টি এস আর সপ্তম বাহিনীর প্রধান কার্যালয় সংলগ্ন সড়কে। জানা যায় এদিন জম্পুইজলা কমিউনিটি হলে বিজেপি-র উদ্যোগে এক যোগদান সভার আয়োজন করা হয়।

 আর সেই যোগদান সভায় যোগদানের জন্য চম্পকনগর সড়ক দিয়ে জম্পুইজলার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন বিজেপি-র সহ- সভানেত্রী পাতাল কন্যা জমাতিয়া। একই কর্মসূচী যোগ দেওয়ার কথা ছিল মন্ত্রী রামপদ জমাতিয়ার। তবে পাতাল কন্যা জমাতিয়ার কনভয় জম্পুইজলা টি এস আর সপ্তম ব্যাটেলিয়ানের প্রধান কার্যালয় সংলগ্ন সড়কে পৌছুতেই রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে স্থানীয় একাংশ মানুষ। পাতাল কন্যা গো ব্যাক বলে স্লোগান দিতে থাকেন তারা। আচমকা উত্তেজিত পড়ে অবরোধ কারীরা। পুলিশি বাঁধা অতিক্রম করে পৌঁছে যায় পাতাল কন্যা জমাতিয়ার গারির কাছে। সেখানে পৌঁছে বিক্ষোভ দেখাতে তারা। টি এস আর ও পুলিশি পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। আচমকাই বিজেপি-র সহ- সভানেত্রীর গারিতে ভাংচুর চালায় দুষ্কৃতীরা।

 এই আক্রমণে আহত হয় পাতাল কন্যা জমাতিয়ার বড় বোন কবিতা জমাতিয়া সহ দুই জন দেহরক্ষী। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। উত্তেজনার পারদ আরো চড়ে। কোন ক্রমে ঘটনাস্থল থেকে বেরিয়ে সোজা জম্পুইজলা থানায় আশ্রয় নেয় পাতাল কন্যা জমাতিয়া। এদিকে মন্ত্রী রামপদ জমাতিয়া একই পথ ধরে জেতে চাইলে বাঁধার সম্মুখীন হন। এরপর বিষয়টি রাজ্য পুলিসের মহানির্দেশক, মুখ্যমন্ত্রী ও পুলিশ সুপারের গোচরে নেওয়া হয়। বারানো হয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। কিন্তু একাংশ মানুষ পথ অবরোধ করে রাখে। তারা পুলিশ প্রশাসনের বক্তব্যে আমল দিতে নারাজ। এই ঘটনাকে করে নতুন করে উত্তেজিত হয়ে পড়ে জম্পুইজলা এলাকা। গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ, টি.এস.আর সহ আধাসামরিক বাহিনী।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য