Wednesday, August 17, 2022
বাড়িরাজ্যপ্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সুযোগ-সুবিধা বন্ধ করতে কংগ্রেসের দাবি

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সুযোগ-সুবিধা বন্ধ করতে কংগ্রেসের দাবি

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২০ মে : রাজ্যে একটা পট পরিবর্তন হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব পদত্যাগ করেছেন। কিন্তু বর্তমানে তিনি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সমস্ত সুযোগ সুবিধা ব্যবহার করছেন। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সমস্ত সুযোগ সুবিধা বন্ধ করার দাবি জানানো হচ্ছে। শুক্রবার প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা বললেন প্রাক্তন বিধায়ক তথা কংগ্রেস নেতা সুদীপ রায় বর্মন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজ্য সফরে এসে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের খুব প্রশংসা করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এবং তার সরকারের নেতৃত্বে নাকি ত্রিপুরার উন্নয়ন বিকাশ হচ্ছে। কিন্তু তারপরেও কেন বিপ্লব কুমার দেবকে পদত্যাগ করতে হয়েছে, তা জানতে চাওয়া হয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। কিন্তু এখন পর্যন্ত রাজ্যবাসী এর কোনো সদুত্তর পায়নি। তাই প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বি জে পি কাছে জানতে চাওয়া হচ্ছে এমন কী অপরাধ করেছেন বিপ্লব কুমার দেব, যে তাকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়েছে। প্রক্তন বলছেন সংগঠন দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। তাই চীনের সাংগঠনিক কাজে নেমেছেন। কিন্তু যে ব্যক্তি সংগঠন চালাতে পারেনা সেই ব্যক্তিকে কিভাবে সাংবিধানিক পদে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নাকি শাক দিয়ে মাছ ঢাকার প্রচেষ্টা করছে। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এখন একজন বিধায়ক। কিন্তু দেখা যাচ্ছে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের পরেও এখনো মুখ্যমন্ত্রীর সুবিধা পেয়ে যাচ্ছেন।

 তাহলে অন্য বিধায়করা এ ধরনের সুবিধা পাবেন না কেন। মুখ্যমন্ত্রীর আবাসন কেন প্রাক্তনের দখলে। জনগণের ট্যাক্সের টাকা দিয়ে কেন মুখ্যমন্ত্রীর সুবিধা গ্রহণ করছেন বিধায়ক বিপ্লব কুমার দেব। গত কয়েকদিনে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব জনগণের ট্যাক্সের যে টাকা ব্যয় করেছেন তা ফেরত দিতে হবে। এবং রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশকের কাছে দাবি জানানো হচ্ছে, তিনি যেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সমস্ত নিরাপত্তারক্ষী তুলে দেন বলে জানান তিনি। বিপ্লব কুমার দেবের বিন্দুমাত্র কান্ডজ্ঞান এবং লজ্জা নেই। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলা হচ্ছে তিনি যে সাংবিধানিক চেয়ারে বসে দুর্নীতি করেছেন তার জন্য ত্রিপুরাবাসী যেতে দেবে না বলে জানান সুদীপ রায় বর্মন। আগরতলা স্মার্ট সিটির নাম করে যে অর্থ ব্যয় করা হয়েছে বলে জানাচ্ছেন কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে তদন্তের দাবি জানালেন প্রাক্তন বিধায়ক তথা কংগ্রেস নেতা আশীষ কুমার সাহা। তিনি বলেন আগরতলা পুর নিগম কর্তৃপক্ষ উন্নয়ন করতে যেন সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে, না হলে আগামী দিনে আইনি পথে হাঁটবে কংগ্রেস। কারণ শহরে এভাবে জল জমার ফলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। বাড়িঘর এবং ব্যবসায়ীদের ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হতে হচ্ছে। তাই সঠিক পরিকল্পনার অভাবে এ ধরনের অবস্থা স্মার্ট সিটির বলে মনে করেন তিনি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য