Friday, August 19, 2022
বাড়িরাজ্যপ্রয়াত যুবনেতার বাড়িতে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী

প্রয়াত যুবনেতার বাড়িতে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৭ মে : শনিবার রাতে মনুঘাট করমছড়া মন্ডলের যুব মোর্চার মন্ডল সভাপতি মিহির দাস সহ আক্রান্ত কর্মীদের বাড়িতে গেলেন মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। সেদিন প্রয়াত যুবনেতা মিহির দাস তার চার বন্ধুর সাথে বাজার থেকে বাড়ি ফেরার সময় খুন হয়। জানা যায়, সেদিন ধলাই জেলার মনুঘাট থানাধীন স্কুল পাড়া এলাকায় আসার পর তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় মিহির দাসের।

 গুরুতর ভাবে আহত হয় তার দুই বন্ধু। ঘটনার পর ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। নিহত ও আহতদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। রবিবার হাসপাতালে গিয়ে বিধায়ক পরিমল দেববর্মা মৃত মিহির দাসের পরিবারের লোকজনদের সাথে কথা বলেন। ঘটনার বিষয়ে অবগত হন। ঐ দিনই রাজ্যের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন ডাক্তার মানিক সাহা। বিধায়ক পরিমল দেববর্মা ঘটনার বিষয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে অবগত করেন। সেই মোতাবেক মঙ্গলবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ৪৮ করমছড়া মন্ডলের যুব মোর্চার মন্ডল সভাপতি মৃত মিহির দাসের বাড়িতে যান।

তাঁর বাড়িতে গিয়ে পরিবার পরিজনদের সাথে কথা বলেন। তাদের সমবেদনা জানান। মুখ্যমন্ত্রী জানান আক্রমণকারীরা যেই হইক তাদেরকে খোঁজে বের করে উপযুুক্ত শাস্তি প্রদান করে আইনের শাসন বজায় রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশ মোতাবেক ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে প্রয়াত মিহির দাসের স্ত্রী অর্পিতা দাসের হাতে ২ লক্ষ টাকার চেক তুলে দিয়ে আর্থিক সহযোগিতা করা হয়। পরে আহত সুজিত বনিকের বাড়িতে গিয়ে তার স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখান থেকে আহত গোপাল বণিকের বাড়িতে গিয়েও ঘটনা সম্পর্কে অবগত হন। গোপাল বণিক এর শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। পাশাপাশি আর্থিক সহযোগিতা করেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর ছাড়াও এদিন মৃত যুবনেতার বাড়িতে যান সাংসদ রেবতী কুমার ত্রিপুরা, বিধায়ক পরিমল দেববর্মা সহ স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব সহ কর্মী সমর্থকরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য