Monday, May 16, 2022
বাড়িরাজ্যপরিদর্শনে গিয়ে সি পি আই এম -এর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন মন্ত্রী

পরিদর্শনে গিয়ে সি পি আই এম -এর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন মন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৮ মার্চ : রবিবার মান্দাই বাজারে ভারতীয় জনতা পার্টির অফিসটি পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। ঘটনার পর সোমবার পরিদর্শনে যান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। কথা বলেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বদের সাথে। ঘটনা সম্পর্কে অবগত হয়ে তীব্র নিন্দা জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।

পরবর্তী সময়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়। সঙ্গে ছিলেন প্রদেশ বিজেপি সাধারণ সম্পাদিকা পাপিয়া দত্ত, সহ সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী বলেন, আধুনিক ত্রিপুরার রূপকার মহারাজা বীর বিক্রম কিশোর মানিক্যের নামে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর উৎসর্গ করা হয়েছে। এবং তাঁর মূর্তিটি ছিল মান্দাই দলীয় কার্যালয়ের সামনে। মূর্তিটি ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে। যারা এধরনের কাজ করেছে তারা সেই দলের আদর্শ কালিমালিপ্ত করতে চাইছে। কারণ তারা সি পি আই এম থেকে সেই দলে যোগদান করেছে। যাতে সেই দলকে কালিমালিপ্ত করা যায়। তাই সেই দলের নেতৃবৃন্দের কাছে দাবি জানানো হচ্ছে যাতে দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করে পুলিশ। কারণ সিপিআইএম ঘোলা জলে মাছ ধরতে চাইছে। না হলে রাজ্যে অশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি হচ্ছে। সিপিআইএম বুঝতে পারছে রাজ্যে পাহাড়ের ২০ টি আসনে তারা শূন্য হয়ে গেছে।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তাদের সমর্থন করবে না মানুষ। অর্থাৎ তারা খাতা খুলতে পারবে কিনা তার যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। তাই তারা ঘোলা জলে মাছ ধরতে এধরনের অশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি করতে চাইছে। এটা কঠোর হস্তে সাংগঠনিকভাবে এবং মানুষকে পাশে নিয়ে মোকাবিলা করা হবে বলে জানান সুশান্ত চৌধুরী। কিন্তু সরাসরি তিপ্রা মথার নাম এবং দলের নেতৃবৃন্দদের কথা উচ্চারণ করতে দিন ভয় পান সুশান্ত চৌধুরী। জাতি উপজাতি একসাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজ্যে থাকতে হবে। সরকারের মূল উদ্দেশ্য এক ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা। আর এ স্বপ্ন রাজ্যের মহারাজা বীর বিক্রম কিশোর মানিক্য, প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি এবং মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের বলে জানান তিনি। তাই পাহাড়ি-বাঙালি সকলকে মিলেমিশে থাকতে হবে বলে জানান সুশান্ত চৌধুরী। তবেই তিনি আরো একবার পরিষ্কার বুঝিয়ে দিলেন বিজেপি গ্রেটার তিপরাল্যান্ডের সমর্থন করে না। জাতি উপজাতি সকলের মিলবন্ধনের ত্রিপুরা এক ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা গড়ে তুলতে চায়। পুলিশ জানায় এ ঘটনায় ১০ জন অভিযুক্তকে চিহ্নিত করেছে। বিজেপি’র পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। পুলিশ রবি দেববর্মা নামে একজনকে গ্রেফতার করে কোর্টে তুলেছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য