Friday, May 20, 2022
বাড়িরাজ্যধর্মঘট সফল করতে আহ্বান ত্রিপুরা কর্মচারী সমন্বয় কমিটির

ধর্মঘট সফল করতে আহ্বান ত্রিপুরা কর্মচারী সমন্বয় কমিটির

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৬ মার্চ। সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে নির্বাচিত হলেও সরকার পুঁজিপতিদের স্বার্থ রক্ষা করতে এমন কিছু নীতি গ্রহণ করছে, যেগুলি সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের সর্বনাশ ডেকে আনছে। সরকারের বিরুদ্ধে কৃষক-শ্রমিক এবং সরকারি কর্মচারী সকলে ক্ষুদ্ধ। তাই আগামী ২৮ এবং ২৯ মার্চ ১২ দফা জাতীয় জাতি এবং ৯ দফা দাবির সমর্থনে ধর্মঘট সফল করার আহ্বান জানান ত্রিপুরা কর্মচারী সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্বপন বল।

 এদিন মেলার মাঠ স্থিত সমন্বয় ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি বলেন, পূর্বতন সরকারের আমলে রাজ্যে সরকারি কর্মচারীরা বছরে দুইবার ডি এ পেত। কিন্তু বর্তমান সরকারের আমলে গত চার বছরে মাত্র একবার ডি এ পেয়েছে সরকারি কর্মচারীরা। এতে শিক্ষক-কর্মচারী সকলে বর্তমান সরকারের উপর ক্ষুদ্ধ। দেশের শ্রমিকদের স্বার্থে ৪৪ টি শ্রম আইন ছিল। এগুলি ৪ টি শ্রম কোডে পরিণত করে শ্রমিকদের উপর আঘাত নামিয়ে আনা হয়েছে। শ্রমিকদের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এতে বঞ্চিত হবে শ্রমিকরা। দেশি কৃষকদের বিরুদ্ধে কৃষি আইন লাগু করেছিল। পরবর্তী সময়ে এক বছরের অধিক সময় প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং বিভিন্ন শক্তিকে মোকাবিলা করে সরকারকে কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেছে। তবে সরকার বাকি যে ৬ টি দাবি পূরণ করার আশ্বাস দিয়েছিল সেগুলো এখনো পূরণ করে নি।

এবং এই দাবিগুলো পূরণ করার সরকার এখন আর কোন সদিচ্ছা প্রকাশ করছে না। তাই কৃষক-শ্রমিক সহ সমস্ত অংশের মানুষের জন্য এই ধর্মঘট সফল করার আহ্বান জানানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। আরো বলেন, ধর্মঘটে জরুরী ভিত্তিক পরিষেবা সহ বিদ্যুৎ পরিষেবা কাজে নিয়োজিত কর্মীরা এবং কেন্দ্রীয় আওতাধীন পরীক্ষা ধর্মঘটের আওতার বাইরে থাকবে। শিক্ষক-কর্মচারী সকলের যাতে এই ধর্মঘটে এগিয়ে আসে তার জন্য আহ্বান জানানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। ধর্মঘটের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকারকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে দাবিগুলো যদি পূরণ না হয় তাহলে আগামী দিনে এক থেকে বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে শিক্ষক-কর্মচারীরা বলে জানান তিনি। এদিন আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের চেয়ারম্যান মহুয়া রায়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য