Monday, July 15, 2024
বাড়িরাজ্যসন্ত্রাসের অপর নাম বিজেপি, বিজেপি -র অপর নাম সন্ত্রাস, স্থানীয়দের নেতাদের ক্ষমতা...

সন্ত্রাসের অপর নাম বিজেপি, বিজেপি -র অপর নাম সন্ত্রাস, স্থানীয়দের নেতাদের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে বামফ্রন্টের সাথে জোট হবে কিনা : সুদীপ

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১১ জুলাই : ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচন ঘোষণা হতে বিরোধীদের উপর আক্রমণ শুরু হয়েছে শাসকদলের। এমনটাই অভিযোগ তুললেন কংগ্রেস বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন। তিনি বৃহস্পতিবার প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন সর্বদলীয় বৈঠক থেকে বাড়ি ফেরার পর বিভিন্ন জায়গায় কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের উপর আক্রমণ সংঘটিত করছে শাসক দলের দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত চারটি ঘটনা সামনে এসেছে। কংগ্রেস কর্মীদের মারধোর, বাইক ভাঙচুর এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার মতো ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। এর মধ্যে একটি ঘটনা সাতচান আর ডি ব্লক, টেপানিয়া আর ডি ব্লক এবং ডুকলি আর ডি ব্লক, সালেমা আর ডি ব্লক এলাকায় ঘটেছে। গত ৯ জুলাই একইভাবে কল্যানপুর আর ডি ব্লক এবং মোহনপুর আর ডি ব্লক এলাকায় আক্রমণ হয় কংগ্রেস কর্মীদের উপর। বলা যায় পঞ্চায়েত নির্বাচন ঘোষণার আগে থেকে সারা রাজ্যে শাসক দলের দুর্বৃত্তদের সন্ত্রাস শুরু হয়েছে। তাই সন্ত্রাসের অপর নাম বিজেপি, বিজেপি -র অপর নাম সন্ত্রাস। তারা গণতন্ত্রকে বিশ্বাস করে না। পায়ের নিচে মাটি সরে গেছে। গুন্ডারা দলটাকে চালাচ্ছে।

 এবং এই গুন্ডাদের দ্বারা জয়ী হওয়ার জন্য চেষ্টা করছে। এ কথা বলে দাবি করেন সুদীপ রায় বর্মন। তিনি নির্বাচন কমিশনের দিকে আঙ্গুল তুলে বলেন, শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সংঘটিত করতে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল নির্বাচন কমিশনকে। কিন্তু একটি পরামর্শ গ্রহণ করেনি নির্বাচন কমিশন। তারপরেও এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করতে হবে। তাই প্রত্যেক বিরোধী কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলা হচ্ছে বুক চেটিয়ে লড়াই করুন। শাসকদল বিজেপি কাপুরুষ। আপনারা সবাই সঙ্ঘবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদ এবং প্রতিহত করুন। তিনি আরো বলেন আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে কংগ্রেস এবং বামফ্রন্ট জোট হয়ে লড়াই করার ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া হয়েছে স্থানীয় কংগ্রেস নেতৃত্বদের উপর। তাঁরা সিদ্ধান্ত নেবে কিভাবে লড়াই করবে, নিজ এলাকার পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে তারা লড়াই করবে বলে জানান তিনি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য