Wednesday, July 24, 2024
বাড়িরাজ্যমহারাজগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে অনিয়ম প্রত্যক্ষ করলেন এনফোর্সমেন্ট টিম

মহারাজগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে অনিয়ম প্রত্যক্ষ করলেন এনফোর্সমেন্ট টিম

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৮ জুন : আগরতলা শহরের প্রধান বাজার গুলির মধ্যে ঘাঁটি করে বসে আছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। তারা মর্জি মাফিক আলু পিয়াজ ও নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর মূল্য নির্ধারণ করে। বর্তমানে পেঁয়াজের মূল্য ৩৫ থেকে ৪০ টাকা এবং আলুর মূল্য প্রায় ৪০ টাকার অধিক অধিকাংশ দোকানে। বাজারে কোন রকমের সংকট না থাকলেও তারা কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে সাধারণ মানুষের পকেট কেটে চলেছে।

 নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর মূল্য নিত্য অভিযান না চালানো হলে কোনভাবেই অসাধু ব্যবসায়ীদের রুখা যাবে না বলে মনে করছে ক্রেতা মহল। শনিবার সদর মহকুমা শাসকের নির্দেশে আগরতলা শহরের মহারাজগঞ্জ বাজার সহ অন্যান্য বাজার গুলিতে অভিযান চালায় এনফোর্সমেন্ট টিম। তারা বিভিন্ন দোকানে গিয়ে আলো পেঁয়াজের মূল্যের সম্পর্কে অবগত হয়। পরবর্তী সময়ে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে খাদ্য ও জনসংভরন দপ্তরের আধিকারিক স্বপন দেববর্মা জানান বাজারের রামপ্রসাদ ভূঁইয়া নামে এক হোল সিলারের দোকানে অভিযান চালানোর পর দেখা যায় তার কাছে আলু পেঁয়াজ ক্রয় করার এবং বিক্রয় করার কোন কাগজপত্র নেই।

পাশাপাশি পলাশ পাল নামে এক ব্যবসায়ীর দোকানে গিয়ে আলু পেঁয়াজের ক্যাশ মেমো চাওয়া হলে তিনিও দেখাতে পারেনি। একইভাবে ব্যবসা করছে শংকর পাল নামে আরও এক ব্যবসায়ী। তিনিও কোন ক্যাশ মেমো দেখাতে পারেনি। দোকানে মজুদ থাকা আলু পেঁয়াজ কত টাকা মূল্যে তারা ক্রয় করেছে এবং মানুষের কাছে বিক্রি করছে তার কোন ক্যাশ মেমোর নেই তাদের কাছে। যার কারণে এনফোর্সমেন্ট টিমের পক্ষ থেকে তাদের কাছে কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে। সোমবার তারা কারণ জানানোর পর শোকজ করা হবে তাদের। এবং এই অভিযান আগামী দিনে অব্যাহত থাকবে বলে জানান খাদ্য ও জনসংভরন দপ্তরের আধিকারিক স্বপন দেববর্মা। পাশাপাশি তিন রিকশা আলু পেঁয়াজ আটক করা হয়। রিক্সা চালকরা এই আলো পেঁয়াজের কোন ক্যাশ মেমো দেখাতে পারেনি এনফোর্সমেন্ট টিমকে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য