Friday, May 31, 2024
বাড়িরাজ্যবনদপ্তরের দখল করার জমি পরিদর্শনে গেলেন আধিকারিকরারা

বনদপ্তরের দখল করার জমি পরিদর্শনে গেলেন আধিকারিকরারা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৪ মে :    

২৫ থেকে ৩০ বছর হয়ে গেল পানিসাগর মহকুমা অধীন পেকুছড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ৫ নং ওয়ার্ডে ৮৩ টি পরিবার দখল করে বসে আছে বনদপ্তরের জমি। কোনভাবেই তাদেরকে উৎখাত করা সম্ভব হচ্ছে না বলে বন দপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

 মঙ্গলবার বনদপ্তরের পিসিসিএফ অনিমেষ দাস, আইএফএস সুমন মল্ল, উত্তর জেলা বনদপ্তরের আধিকারিক অশোক কুমার, বনদপ্তরের মহকুমা আধিকারিক, ধর্মনগর এবং পানিসাগর পর্যায়ের রেঞ্জাররা এলাকা পরিদর্শন করেন। জানা যায়, মোট ৮৩ টি পরিবার এই বনভূমির জায়গা দখল করে দীর্ঘদিন যাবত বসবাসের দায়িত্ব পালন করে চলেছে। ২৫ থেকে ৩০ বছর আগে এক পরিবার এখানে বসবাস শুরু করেছিল। বর্তমানে ৮৩ টি পরিবার এখন এই পাঁচ নং ওয়ার্ডে বসবাস করছে বলে জানানো হয়েছে। প্রতিক্ষেত্রেই জায়গার মালিক হচ্ছে বন দপ্তর।

কাঞ্চনপুরের দশদা লালজুরী সুভাষ নগর বড় হলদি থেকে এই ৮৩ পরিবার এসে আশ্রয় গ্রহণ করেছে। তাদের দাবি হচ্ছে বিভিন্ন জনবসতি নিয়ে সেখানে বিয়াংদের কারণে বসবাস করা অযোগ্য ভাবায় নিজেদের বাঁচাতে এবং মানসম্মান সহ নিজেদেরকে রক্ষা করতে তারা এসে সরকারি জায়গা দখল করেছে। বন দপ্তর থেকে দীর্ঘদিন যাবত এদের উৎখাতের প্রচেষ্টা চালানো হয়েছিল কিন্তু ব্যর্থ হয়ে গেছেন বনদপ্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা। কাঞ্চনপুরের ভিন্ন এলাকায় এদের বসবাস দুর্বিষহ করে রেখেছে রিয়াং পরিবারের জনকয়েক সদস্য। তাই বাধ্য হয়ে এখন সেই পরিবার পানিসাগর বনদপ্তরের জায়গা দখল করে নিজেদের বসবাসভূমি সৃষ্টি করেছে। বনদপ্তর তাদেরকে সরানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এখন সরকার তাদের প্রতি কি ধরনের মনোবৃত্তি গ্রহণ করে অথবা তাদেরকে কি ব্যবস্থা করে দিতে পারে তার উপর নির্ভর করছে ভবিষ্যৎ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য