Wednesday, May 29, 2024
বাড়িরাজ্যকমিউনিস্টের সরকার যেসব দেশে বা রাজ্যে রয়েছে সেসব জায়গাতেও গণতন্ত্র নেই, তারা...

কমিউনিস্টের সরকার যেসব দেশে বা রাজ্যে রয়েছে সেসব জায়গাতেও গণতন্ত্র নেই, তারা গণতন্ত্রের মুখোশধারী : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৩ এপ্রিল : পূর্বতন সরকারের নীতিকে স্টেলিনের নীতির সাথে তুলনা করে খুন, সন্ত্রাস, ধর্ষণ সহ বিভিন্ন অভিযোগ তুললেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর শান্তিপাড়ায় আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস, সিপিআইএমের জোটকে তীব্রভাবে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী তোপ দেগে বলেন, দীর্ঘ ৩৫ বছরে বহু মানুষের খুন হয়েছে। এর রক্ত এখনো শুকায় নি। আর তাদের সাথে হাত মিলিয়েছে কংগ্রেস।

 আবার তারাই বলে গণতন্ত্র নেই। দীর্ঘ ৩৫ বছর কি গণতন্ত্র রাজ্যে ছিল সেটা রাজ্যবাসী দেখেছে। তারা নিজের উন্নতির জন্য মানুষকে এতটি বছর টুপি পড়িয়েছে। দেশ চুল্লিতে যাক সেটা তারা চেয়েছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকারের কাছে আগে দেশ। তারপর কার্যকর্তা। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, যারা আজ গণতন্ত্রের কথা বলছে তারাই গণতন্ত্র মানে না। কমিউনিস্টের সরকার যেসব দেশে বা রাজ্যে রয়েছে সেসব জায়গাতেও গণতন্ত্র নেই। সুতরাং তাদের মুখের গণতন্ত্রের কথা মানায় না।

 তারা মুখোশ পড়ে আছে। এবং তারা যে সমাজবাদের কথা বলে সেটাও তাদের মানায় না। কারণ তারা সমাজের কথা বলতে বলতে তারা এখন সমাজের সবচেয়ে বড় শত্রু হয়ে গেছে। মুখ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ব্রিটিশদের কাছ থেকে কমিউনিস্ট বিভাজন শিখেছে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী নৃপেন চক্রবর্তী প্রসঙ্গ টেনে বলেন, কমিউনিস্টরা নির্যাতন করেছে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নৃপেন চক্রবর্তী উপর। তিনি মৃত্যু কালে বলে গেছেন কমিউনিস্ট পার্টি থেকে এখন দুর্গন্ধ বের হয়। সুতরাং মানুষ সব বুঝে গেছে। এর নিরিখে মানুষ ভোট দেবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। পশ্চিম ত্রিপুরা আসনের বিজেপি মনোনীত প্রার্থী বিপ্লব কুমার দেবের সমর্থনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কর্পোরেটার রত্না দত্ত সহ অন্যান্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য