Sunday, April 21, 2024
বাড়িরাজ্যঅভাব অনটনের শিকার হয়ে বিকল্প পথ বেছে নিল জুমিয়ারা

অভাব অনটনের শিকার হয়ে বিকল্প পথ বেছে নিল জুমিয়ারা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১ এপ্রিল : পাহাড়ে আর্থিক অভাব অনটনের শিকার হয়ে বিকল্প পথ বেছে নিচ্ছে জুমিয়ারা। জুমিয়া পরিবারগুলি আর্থিক উপার্জনে বেঁচে থাকার পথ জুম চাষ। আর জুমের ফসল ভালো হলেই তারা খুশি। মুঙ্গিয়াকামী ব্লকের অধীন আঠারোমুড়া এ ডি সি ভিলেজের অন্তর্ভুক্ত ৪৭ মাইল এলাকায় বসবাসরত গিরিবাসীর আয় উপার্জনের মাধ্যম হল জুম চাষ। প্রতি বছরের ন্যায় গতবছরও জুমের চাষ করে তারা।

 কিন্তু ফলন ভাল হয় নি বলে খুবই কষ্টের মধ্য দিয়ে দিন গুজরাট করতে হয়েছে। ফলে আর্থিক ভাবে সমস্যার জর্জরিত হয়ে পরে জুমিয়ারা। সংসার প্রতিপালনের জন্য বাধ্য হয়ে বিকল্প আয়ের উৎস খোঁজার চেষ্টা করছে তারা। কোন ধরনের উপায় না পেয়ে পাহাড়ের জঙ্গল থেকে কচু আনছে তারা। এক জুমিয়া পরিবার জানায় জঙ্গল থেকে কচু সংগ্রহ করে তা জাতাকলে পিষে মোচা তৈরি করছে, সেই মোচাকে আবার বাতাসা আকৃতি করে বাজারে বিক্রি করছে।

আঠারোমুড়া পাহাড়ের আসাম – আগরতলা জাতীয় সড়কের পাশে কিংবা মুঙ্গিয়া কামী ও তেলিয়ামুড়া বাজারে বিক্রি করে উপার্জন করছেন বলেও জানায় জুমিয়া কলংকিনি রিয়াং ও ক্ষুদিরাম রিয়াং।  প্রতি কিলো ১০০ টাকায় বিক্রি হলেও পর্যাপ্ত পরিমানে হয় না। কিন্তু সংসার প্রতিপালন করার তাগিদে তাদের করতে হচ্ছে। অন্যান্য বছরে জুমের চাল, কুমুর, তিল, মিষ্টি কুমড় ইত্যাদি চাষ করে সংসার প্রতিপালন করতেন। কিন্তু বিগত বছর প্রকৃতি বিরুপ হওয়ায় আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে জুমিয়া পরিবার গুলো। সরকারি ভাবে সাহায্য সহযোগিতা পেলে এই সমস্যা থেকে কিছুটা নিস্তার পাবে বলেও আশা ব্যক্ত করে জুমিয়া পরিবারের সদস্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য