Friday, March 1, 2024
বাড়িরাজ্যসরকারকে ধন্যবাদ জানালো প্রদেশ বিজেপি

সরকারকে ধন্যবাদ জানালো প্রদেশ বিজেপি

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৩ ফেব্রুয়ারি : লোকসভা নির্বাচনের আগে মিলিঝুলির রাজনীতি ভুলানোর জন্য সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জনগণকে আবারো সাত পাঁচ বোঝানোর চেষ্টা করল প্রদেশ বিজেপির নেতৃত্ব। মঙ্গলবার প্রদেশ বিজেপি কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রদেশ বিজেপির সাধারন সম্পাদক বিপিন দেববর্মা জানান, ত্রিপুরা মধ্য শিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে ককবরক ভাষার পরীক্ষায় রোমান হরফে লেখার দাবিতে জনজাতি ছাত্র-ছাত্রীদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

 বেশ কিছু রাজনৈতিক দল তার ফায়দা তুলতে চেষ্টা করেছে। ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা একজন প্রকৃত অভিভাবক হিসাবে উদ্ভুত সমস্যার সমাধান করেছেন। তার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা, রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারকে ধন্যবাদ জানায় প্রদেশ বিজেপি। তিনি আরও জানান যারা রোমান স্ক্রিপ্টের বিষয় নিয়ে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেছে, তারা বিগত দিনেও রাজনৈতিক ভাবে লাভালাভের চেষ্টা করেছে। বিগত দিনে যারা রাজ্যের মধ্যে ক্ষমতায় ছিল তারা এই রোমান স্ক্রিপ্টের সমস্যার সমাধান করতে চায় নি। কিন্তু বর্তমান সরকার সমস্যা সৃষ্টি হওয়ার সাথে সাথে ছাত্র-ছাত্রীদের কথা ভেবে সমস্যার সমাধান করেছে। এইদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে প্রদেশ সংখ্যা লঘু মোর্চার সভাপতি বিল্লাল মিয়া সংখ্যা লঘু মোর্চার পূর্ণাঙ্গ রাজ্য কমিটির ঘোষণা দেন। নয়া এই রাজ্য কমিটিতে ৪ জন সহসভাপতি, ২ জন সাধারন সম্পাদক, ৫ জন সম্পাদক, এক জন কোষাধ্যক্ষ, একজন যুগ্ম কোষাধ্যক্ষ সহ মোট ৪৮ জন সদস্য সদস্যা রয়েছে। এছাড়াও বিল্লাল মিয়া এইদিন সংখ্যা লঘু মোর্চার খোয়াই জেলা সভাপতি হিসাবে রসিত মিয়া ও সদর জেলার গ্রামীণের সভাপতি হিসাবে মহম্মদ মুজাফর আলীর নাম ঘোষণা করেন।এইদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে প্রদেশ বিজেপির সাধারন সম্পাদক বিপিন দেববর্মা রোমান স্ক্রিপ্ট নিয়ে উদ্ভুত সমস্যা নিয়ে পূর্বতন সরকার ও তৎকালীন শাসক দলকে কাঠগড়ায় তুলতে গিয়ে এক প্রকার বেকাদায় পড়ে যান।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য