Saturday, April 13, 2024
বাড়িরাজ্যভবঘুর মহিলার প্রসব করে দেখালেন বৃহন্নলা

ভবঘুর মহিলার প্রসব করে দেখালেন বৃহন্নলা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৬ সেপ্টেম্বর : মানবিকতার পরিচয় দিলেন সমাজের বৃহন্নলা হিসেবে পরিচিতরা। শুক্রবার দুপুরে এই বৃহন্নলারা সমাজে সাধারণ মানুষকে আরো একবার চোখ খুলে দিল। উদয়পুর বনদুয়ার রেডিও সেন্টারের পাশে দীর্ঘদিন ধরে বসবাসকারি দশজন বৃহন্নলা মানুষ এই অবদান রাখলেন। ভবঘুরে মানসিক ভারসাম্যহীন এক মহিলা গর্ভবতী অবস্থায় কাতরাতে দেখে বৃহন্নলা হিসেবে পরিচিত মুস্তাফা শেখ ওরফে ঝুমুর, মমতা শেখ, পুজা পুরকায়স্থ, নয়নী পুরকায়স্থ এবং অন্তরা পুরকায়স্থ সহ দশজনের এই দলটি গর্ভবতী মহিলাটিকে আশ্রয় দেয়।

 নিয়ে যায় ত্রিপুরা সুন্দরী মহাকুমা হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য টেপানিয়া স্থিত গোমতী জেলা হাসপাতালে রেফার করে দেন। যদিও গোমতী জেলা  হাসপাতালে গর্ভবতী মহিলাকে নিয়ে গেলে চিকিৎসক কোন পরিষেবা দেয়নি বলে অভিযোগ। এরপর তারা নিজের কাছেই রাখেন মহিলাকে।  বাড়িতে জন্ম দেয় এক কন্যা সন্তান। নিয়ে যাওয়া হয় মহারানী প্রাথমিক হাসপাতালে মা ও সন্তানকে। বর্তমানে সুস্থ রয়েছে মা ও সন্তান।  শিশুর ভবিষৎ চিন্তাভাবনা করে ঝুমুরের নেতৃত্বে গোমতী জেলা চাইল্ড ওয়েল ফেয়ারের দপ্তরের উদ্যোগে চাইল্ড লাইনের হাতে তুলে দেওয়া হয়। কাঁন্নায় ভেঙে পরে সকলেই। চাইল্ড ওয়েলফেয়ার দপ্তরের গোমতী জেলা কমিটির চেয়ারম্যান ঝুলন চন্দ্র দাস সমাজে বৃহন্নলা হিসাবে পরিচিত ঝুমুরসহ অন্যান্যদের এই কাজের জন্য প্রশংসা করেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য