Wednesday, October 5, 2022
বাড়িরাজ্যত্রিপুরায় করোনার সংক্রমনে সর্বকালের রেকর্ড, দৈনিক সংক্রমণ হাজার পার

ত্রিপুরায় করোনার সংক্রমনে সর্বকালের রেকর্ড, দৈনিক সংক্রমণ হাজার পার

আগরতলা, ১৪ জানুয়ারি (হি. স.) : ত্রিপুরায় করোনার দৈনিক সংক্রমনে সর্বকালের রেকর্ড ভেঙেছে। ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১০০৭ জনের দেহে করোনার সন্ধান মিলেছে। চিন্তা আরও বাড়িয়ে শুধু পশ্চিম ত্রিপুরা জেলায় সংক্রমণ লাগাতর পাঁচশ-র গন্ডি পার করে চলেছে। শুধু তাই নয়, দক্ষিণ ত্রিপুরায় জেলায় সংক্রমণ শতকের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।

অবশ্য, নমুনা পরীক্ষা বৃদ্ধির সাথেই সংক্রমণের সংখ্যাতেও বড়সড় বৃদ্ধি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিন্ত, গতকালের তুলনায় নমুনা পরীক্ষা কিছুটা কম হয়েছে। দেশ জুড়ে ওমিক্রনের ভয়াবহতার মাঝে ত্রিপুরায় সংক্রমণের হার মারাত্মক বৃদ্ধি চিন্তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। তেমনি সুস্থতা কিছুটা স্বস্তি দিচ্ছে। অবশ্য দিন যত গড়াচ্ছে কমছে সুস্থতার হার।

স্বাস্থ্য দফতরের মিডিয়া বুলেটিন অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় আরটি-পিসিআরে ৮৮৬ এবং র‍্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে ৮৬২৮ জনকে নিয়ে মোট ৯৫১৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাতে, আরটি-পিসিআরে ৯০ জন এবং র‍্যাপিড অ্যান্টিজেনে ৯১৭ জনের দেহে করোনার সংক্রমণ মিলেছে। সব মিলে গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ১০০৭ জনের শরীরে নতুন করে করোনা সংক্রমণের খোঁজ পাওয়া গেছে। করোনা নমুনা পরীক্ষায় বৃদ্ধির জেরে দৈনিক সংক্রমণের হার সামান্য বেড়ে হয়েছে ১০.৫৮ শতাংশ। গতকাল ৯১৬ জনের দেহে নতুন করে করোনার সংক্রমণের খোঁজ মিলেছিল এবং দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল ৯.১০ শতাংশ।

এদিকে, সুস্থতা কিছুটা স্বস্তি দিচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯২ জন করোনার সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেয়েছেন। তাতে বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩৭৫৯ জন। প্রসঙ্গত, ত্রিপুরায় এখন পর্যন্ত ৮৯২২১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ৮৪৫৬৫ জন সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেয়ে সুস্থ হয়েছেন। রাজ্যে বর্তমানে করোনা-আক্রান্তের হার বেড়ে হয়েছে ৩.৯৯ শতাংশ। তেমনি, সুস্থতার হার কমে হয়েছে ৯৪.৮৫ শতাংশ। এদিকে ০.৯৩ শতাংশ হয়েছে মৃত্যুর হার। গত ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু না হওয়ায় এখন পর্যন্ত ত্রিপুরায় ৮২৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য দফতরের মিডিয়া বুলেটিনে আরও জানা গিয়েছে, পশ্চিম জেলা করোনা সংক্রমণে শীর্ষস্থান দখলে রেখেছে। শুধু তাই নয়, পশ্চিম ত্রিপুরা জেলায় পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক বলেই মনে করা হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে পশ্চিম জেলায় ৫৭৬ জন, উত্তর জেলায় ৭৭ জন, সিপাহীজলা জেলায় ৬২ জন, দক্ষিণ জেলায় ৯১ জন, ধলাই জেলায় ৬৪ জন, ঊনকোটি জেলায় ৫৯ জন, খোয়াই জেলায় ৩৬ জন এবং গোমতি জেলায় ৪২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।


ত্রিপুরায় করোনার সংক্রমণ তৃতীয় ঢেউয়ে উচ্চ গতি নিয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয় মিলিয়ে দৈনিক সংক্রমনে সর্বোচ্চ ছিল ৮৫৩। অথচ, তৃতীয় ঢেউয়ে সেই গন্ডি ইতিমধ্যেই পার করে ফেলেছে ত্রিপুরা। আজ সর্বকালের রেকর্ড করার সঙ্গে হাজারের গন্ডিও পার করে ফেলল ত্রিপুরা। দ্বিতীয় ঢেউয়েও দশ সহস্রাধিক নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সংক্রমণের হার এত বড় মাত্রায় পাওয়া যায়নি। তাতে স্পষ্ট, করোনার প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউ থেকে এবার সংক্রমণ অনেকটাই দ্রুত ছড়াচ্ছে। অবশ্য, সারা দেশেই একই অবস্থা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সজাগ ও সতর্ক হওয়া ছাড়া অন্য কোন উপায় নজরে আসছে না, এমনটাই দাবি বিশেষজ্ঞদের। 

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য