Wednesday, June 12, 2024
বাড়িরাজ্যমনিপুর থেকে ত্রিপুরার ছাত্র-ছাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে চিঠি দেন বিরোধী দলনেতা

মনিপুর থেকে ত্রিপুরার ছাত্র-ছাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে চিঠি দেন বিরোধী দলনেতা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৬ মে : মনিপুরে আটকে পড়া ত্রিপুরার ছাত্র-ছাত্রীদের দ্রুত উদ্ধার করে নিয়ে আসার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে চিঠি প্রদান করলেন বিরোধী দলনেতা অনিমেষ দেববর্মা। শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন এখন পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের সুরক্ষিতভাবে রাজ্যে ফিরিয়ে আনার কোন উদ্যোগ সরকারের লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, মনিপুরে বহু এলাকার এখন ডাঙ্গার কবলে রয়েছে। ত্রিপুরার প্রায় শতাধিক ছাত্রছাত্রী মনিপুরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠরত রয়েছে। তারা বর্তমানে নিরাপত্তার অভাবে ভুগছে। এবং বহু কলেজ হোস্টেলে খাদ্য বিতরণ না করায় খাদ্য অভাব দেখা দিয়েছে। সে ছাত্রের ছাত্রীদের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন বিরোধী দলনেতা অনিমেষ দেববর্মা। তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে আরো বলেন, এখন পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনা কোন ব্যবস্থা ত্রিপুরা সরকার গ্রহণ করেছে বলে নজরে আসেনি। তাই শনিবার সকালে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়ে ত্রিপুরার ছাত্র-ছাত্রীদের অবিলম্বে ফিরিয়ে আনার জন্য হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়েছে বলে জানান অনিমেষ দেববর্মা। এদিন তিনি সরকারের সমালোচনা করে বলেন ২০০৩ সালে তিনি বিরোধী দলের বিধায়ক হিসেবে যখন সরকারের উদ্দেশ্যে চিঠি লিখতেন তখন তার প্রতিক্রিয়া পাওয়া যেত এবং কোন বিষয়ে দাবি জানালে সে বিষয়টা সরকার কি নজরে দেখেছে সে বিষয়ে পুনরায় সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে কিংবা মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হতো। কিন্তু বর্তমান সময়ে ৩৭ টি চিঠি মুখ্যমন্ত্রী এবং বিভিন্ন দপ্তরের মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে লেখা হলেও কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে না। শুক্রবার বিধায়ক হোস্টেল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এ বিষয়ে অবগত করা হয়েছে। বিগত দিনের চেয়ে চিঠি গুলি লেখা হয়েছে তার মধ্যে তুলে ধরা হয়েছে বাংলা এবং রোমান হরফে ককবরকে যেন প্রশ্নপত্র তৈরি করা হয়।

এ বিষয়ে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে তার কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি। পরবর্তী সময় খোয়াই জেলা হাসপাতালের ডিজিটাল এক্সরে মেশিন অচল অবস্থায় রয়েছে, তা মেরামত করা এবং চিকিৎসকের সংখ্যা বাড়ানো যায় কিনা তার গুরুত্ব দিতে চিঠি প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু কোন চিঠি সদুত্তর যায়নি। আজকে চিঠি দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দাবি করা মূল উদ্দেশ্য হলো মুখ্যমন্ত্রী যদি দু-তিন দিন পরে চিঠিটি দেখেন তাহলে আরও সমস্যায় পড়বে রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরা। কারণ বহু ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবক আগামী ১০ মে পর্যন্ত ইম্ফল থেকে আগরতলা বিমানের টিকিট পাচ্ছে না। তাই সেসব ছাত্র-ছাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে বিমান সংস্থার সাথে কথা বলার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আর্জি জানানো হয়। কিন্তু বিরোধী দলনেতার এই বক্তব্য অভিভাবকদের বক্তব্যের সাথে সম্পন্ন অমিল। অভিভাবকদের বক্তব্য সরকার ছাত্র-ছাত্রীদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনতে সব ধরনের সহযোগিতা করছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য